২০২০ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্টে নির্বাচনে লড়বেন তুলসি গাবার্ড

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ডেমোক্র্যাট দলের প্রতিনিধি পরিষদ সদস্য তুলসি গাবার্ড। ২০২০ সালে আমেরিকার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। খবর পার্সটুডের।

সেই নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন হাওয়ায় থেকে নির্বাচিত প্রতিনিধি পরিষদ সদস্য ৩৭ বছর বয়সী তুলসি। দলীয় মনোনয়ন পেলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি হবেন প্রথম হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিদ্বন্দ্বী। তিনি ছিলেন ইরাক-যুদ্ধ বিরোধী একজন রাজনীতিক এবং নির্বাচনে তিনি যুদ্ধ-বিরোধী প্রচারণাকেই বিশেষ গুরুত্ব দেবেন বলে জানিয়েছেন।

মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-কে তুলসি বলেন, “আমি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেব।” এর আগে ডেমোক্র্যাট দল থেকে সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন একই আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এরপর তুলসি গাবার্ড এ ঘোষণা দিলেন। আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দল থেকে আরো কমপক্ষে ১২ জন প্রার্থী আসতে পারেন। এর মধ্যে রয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়া থেকে নির্বাচিত ভারতীয় বংশোদ্ভূত আরেক সিনেটর কমলা হারিস। তবে তুলসি গাবার্ড হলেন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদে চার বার নির্বাচিত সদস্য।

তুলসি গাবার্ড তার জীবনের প্রথম দিকে হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হন। তিনি ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিনিদের কাছে খুবই জনপ্রিয় ব্যক্তি। যদি তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে পারেন তাহলে মার্কিন ইতিহাসে একসঙ্গে চারটি রেকর্ড গড়বেন। প্রথমত তিনি হবেন সবচেয়ে কম বয়সী প্রেসিডেন্ট। দ্বিতীয়ত মার্কিন ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট। তৃতীয়ত তিনি হবেন খ্রিস্টান নন, এমন প্রেসিডেন্ট। চতুর্থত প্রথম হিন্দু প্রেসিডেন্ট। তবে, মার্কিন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা তার সামনে খুব বেশি সম্ভাবনা দেখছেন না।

মানবকণ্ঠ/এআর

Leave a Reply

Your email address will not be published.