হেচকি থেকে ঘরোয়া নিস্তার

হেচকি থেকে ঘরোয়া নিস্তার

হেচকি ওঠা নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। চিকিৎসকদের মতে, হেচকির কোনো বিশেষ একটি কারণ নেই। নানা কারণেই হেচকি উঠতে পারে।

খেতে বসার পর খাবার পেটে যাওয়ার পরেই বা দ্রুত খেতে চেষ্টা করলে, গরম ও মশলাদার খাবার খেলে কিংবা গরম খাবারের সঙ্গে ঠাণ্ডা জল খেলে হেচকি ওঠার প্রবণতা বাড়ে। অনেক সময় দীর্ঘ ক্ষণ হাসলে বা কাঁদলেও হেচকি ওঠে। আবার বড় ধরনের কোনো অসুখের কারণেও হেচকির প্রবণতা থাকে।

বড় কোনো অসুখ ছাড়া সাধারণ কারণে হেচকি উঠলে জল খেলে তা কমে, লিভার ঠাণ্ডা হয়, এমন একটা ধারণা আমাদের আছেই। তবে তা থেকে নিষ্কৃতি পেতে আরো কিছু ঘরোয়া কিছু উপায় অবলম্বন করাই যায়। দেখে নিন সে সব কী কী।

হঠাৎ হেচকি ওঠা শুরু করলে সঙ্গে সঙ্গে কয়েক চামচ মাখন বা চিনি খান। মাখনের ফ্যাট ও চিনির শর্করা হেচকি কমাতে কার্যকর।

ঘাড়ে গরম তেল দিয়ে ভালো করে মালিশ করুন, হেচকি সহজে কমবে।

লম্বা শ্বাস নিয়ে ভেতরে অনেকক্ষণ তা ধরে রেখে দিন। সঙ্গে অবশ্যই নাক বন্ধ রাখুন। শ্বাস বার করতে না পারার কষ্ট অসহ্য হয়ে উঠলে ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়ুন। বার কয়েক এই পদ্ধতি অবলম্বন করলে সহজেই কমবে হেচকি।

দুই কানে দুই আঙ্গুল ঢুকিয়ে কিছুক্ষণ থাকুন। শ্বাস চেপে রাখুন সেটুকু সময়। দেখবেন, হেচকি নিমেষেই বন্ধ হয়ে গেছে।

খাটে বসে লম্বা শ্বাস নিন, এবার দুই হাঁটুকে মুড়ে বুকের কাছে আনুন। পেটের তলদেশে চাপ পড়ে হেচকি বন্ধ হয় এই উপায়ে। আনন্দবাজার।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.