হাওয়া ভবনের দুর্নীতি মানুষ আর দেখতে চায় না: মেনন

হাওয়া ভবনের দুর্নীতি মানুষ আর দেখতে চায় না: মেনন

বিএনপি-জামায়াত জোট শাসনামলের লুটপাট-দুঃশাসন ও হাওয়া ভবনের দুর্নীতি মানুষ আর দেখতে চায় না— এমন মন্তব্য করে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও ঢাকা-৮ আসনের মহাজোট প্রার্থী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করে আনন্দে ভাসতে চাই আমরা। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে রোববার ঢাকা মেডিকেল নার্সিং কলেজে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মেনন বলেন, স্বাধীনতার ধারা, মুক্তিযুদ্ধের ধারা ও অর্থনৈতিক ধারাকে এগিয়ে নিতে সবাইকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতার অর্জনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে অংশীদারীর জায়গা থেকে জিয়াউর রহমানকেও মুক্তিযুদ্ধের ঘোষক হিসেবে দেখানো হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোটের শাসনামলের লুটপাট-দুঃশাসন ও হাওয়া ভবনের দুর্নীতি মানুষ আর দেখতে চায় না।

তিনি বলেন, আজ মহান বিজয় দিবস। এই বিজয় দিবস বহু ত্যাগ তিতিক্ষার মধ্য দিয়ে অর্জিত হয়েছে। একটি মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। এতে নার্সদের অনেক অবদান রয়েছে। মহান বিজয় দিবসের এই আনন্দকে ৩০ ডিসেম্বর নৌকাকে বিজয়ী করে আরো বেশি আনন্দে আমরা ভাসতে চাই। নৌকায় ভোট চেয়ে মেনন বলেন, ১০ বছরের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধরে রাখতে হবে। স্বাধীনতা বিরোধীরা বরাবরই বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করে আসছে। তাদের রুখে দাঁড়াতে হবে।

তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনা নার্সদের বিষয়ে অত্যন্ত বিনয়ী। আবার যদি ক্ষমতায় আসি নার্সদের সব দাবি পূরণের চেষ্টা করা হবে। ৩০ ডিসেম্বর সারাদিন নৌকায় ভোট দেবেন। যেন আরো একটি বিজয় আমরা উদযাপন করতে পারি।

নার্সিং কলেজের অধ্যক্ষ ড. জোসিন্তা গোমেজের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবু ইউসুফ ফকির, স্বাচিপ নেতা ডা. আলাউদ্দিন, স্বাসিপের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ, বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শাখার সভাপতি মো. কামাল হোসেন পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামাল জুয়েল প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএস