সড়কের পাশ থেকে নবজাতক উদ্ধার

কুমিল্লার লাকসামে সড়কের পাশ থেকে এক নবজাতক মেয়ে শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের লাকসাম ভাটিয়াভিটা নামক স্থান থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

জানা যায়, লাকসাম ভাটিয়াভিটা এলাকার জাকির হোসেন সকাল ৮টার দিকে ওই সড়ক দিয়ে বাজারে যাওয়ার পথে সড়কের পাশে ঝোপের মাঝে এক শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পান। পরে স্থানীয় লোকজনকে নিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে লাকসাম সরকারী হাসপাতালে নিয়ে আসেন। কর্মরত চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে শিশুটিকে দ্রুত কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

উদ্ধারকারী জাকির হোসেন বলেন, চলার পথে হঠাৎ করে শিশুটির চিৎকার শুনে আমি একটু ভয় পেয়ে যাই। পরে আমার ভাইকে ডেকে এনে সড়কের পাশে ঝোপের ভেতর থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করি। এ সময় ওই শিশুটির নাকে কসটেপ এবং শিশুটির হাতে পায়ে পিপীলিকা ও পোকামাকড়ের কামড়ের রক্তাক্ত চিহ্ন ছিলো। ধারনা করা হচ্ছে রাতের আধারে কে বা কারা সদ্য ভূমিষ্ঠ ওই শিশুটিকে ঝোপের ভেতর ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতা নিয়ে শিশুটিকে লাকসাম সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসি। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত শিশুটির পরিচয় সনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।
লাকসাম সরকারি হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসক ডা. ইসরাত জাহান বলেন, স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে নিয়ে এলে জরুরী বিভাগে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা প্রেরণ করি।

মানবকণ্ঠ/এসএ

Leave a Reply

Your email address will not be published.