স্কুলছাত্রী হত্যায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় স্কুলছাত্রী হুমায়রা আক্তার মুন্নীকে (১৯) কুপিয়ে হত্যার দায়ে ইয়াহিয়া সরদারকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার বেলা ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আদালতে আসামি ইয়াহিয়া সরদার উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ইয়াহিয়া সরদার জেলার দিরাই উপজেলার সাকিতপুর গ্রামের জামাল সরদারের ছেলে। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনাকারী (পিপি) ড. খায়রুল কবীর রোমেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় আগাম ঘোষণা দিয়ে ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাসায় ঢুকে দিরাই বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী হুমায়রা আক্তার মুন্নীকে ছুরিকাঘাতে খুন করেন ইয়াহিয়া সরদার। এ ঘটনার দুদিন পর ১৮ ডিসেম্বর নিহতের মা বাদী হয়ে দিরাই থানায় ইয়াহিয়া সরদার ও তার অপর এক সহযোগীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ প্রথমে ইয়াহিয়ার সহযোগী দিরাই পৌর শহরের আনোয়ারপুর নয়াহাটির বাসিন্দা আবুল কালাম চৌধুরীর ছেলে তানভীর আহমদ চৌধুরীকে গ্রেফতার করে। এর পাঁচদিন পর সিলেটের জালালাবাদ থানার মাসুকপুর গ্রামসংলগ্ন দশশাল থেকে প্রধান আসামি ইয়াহিয়া সরদারকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার আলোচিত এ মামলার রায়ে সন্তোস প্রকাশ করে নিহত মুন্নীর মা রাহেলা বেগম ও তার স্বজনরা দ্রুত রায় কার্যকর করার দাবি জানান। আসামিপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট হুমায়ন মঞ্জুর চৌধুরী।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.