সৌদি থেকে বাংলাদেশে চোর ধরালেন বাহুবলের রুহুল

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:
বাংলাদেশের একটি দোকানে চুরি করতে গিয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ চার চোরকে সৌদি আরব থেকে ধরালেন বাংলাদেশি যুবক রুহুল আমীন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার মিরপুর বাজারের এম এস কম্পিউটার অ্যান্ড টেলিশপে এ ঘটনাটি ঘটে।
তৃতীয়বারের মতো চুরি হওয়া দোকানটিতে, সৌদি আরব থেকে সিসি ক্যামেরা দ্বারা চোর দেখতে পেয়ে তাদের আটক করা হয়।
আটক চোরেরা হলেন উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের বাঘেরখাল গ্রামের শামসুদ্দিনের ছেলে রমজান আলী (২৫), উপেজলার মিরপুর ইউনিয়নের বানিয়াগাঁও গ্রামের সিএনজিচালক আরব আলী (২৫), একই গ্রামের তহুরা বেগম (৩০) ও তার স্বামী অলুয়া গ্রামের রুবেল মিয়া (৩৫)। চুরি হওয়া এম এস কম্পিউটারের মালিক মনিরুল আমীন জানান, রাত আড়াইটার দিকে সৌদি আরব থেকে তার ভাই রুহুল আমীন সিসি ক্যামেরায় দেখতে পান দোকানের উপরের টিন কেটে চোর ঢুকেছে। তাৎক্ষণিক তিনি মোবাইল ফোনে বিষয়টি বাংলাদেশে থাকা তার ভাই মনিরুলকে জানান। খবর পেয়ে মনিরুল গ্রামবাসী ও বাজারের পাহারাদারদের সঙ্গে নিয়ে দোকানের আশপাশ ঘেরাও দিয়ে তাদেরকে আটক করেন।
তিনি বলেন, পর পর তিনবার চুরি হওয়ার পর থেকে তার ভাই সৌদি প্রবাসী রুহুল আমীন সিসি ক্যামেরায় রাতে দোকানটি দেখভাল করেন।
মিরপুর বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আজাদ মিয়া জানান, বহু মোবাইল দোকান চুরি হয়েছে। আজ পর্যন্ত কোনো চোর ধরা সম্ভব হয়নি। এই প্রথম সৌদি থেকে সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ করে চোর ধরা সম্ভব হয়েছে। বাহুবল মডেল থানার ওসি মো. মাসুক আলী জানান, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।