সিলেটে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের গোলাগুলিতে নিহত ১

সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের গোলাগুলিতে এক কর্মী নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুর ১টার দিকে কলেজের নতুন ভবনের একটি কক্ষ থেকে গুলির শব্দ পাওয়ার পর সেখানে লিটুকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা।

নিহত খালেদ আহমদ লিটু (২৩) উপজেলা ছাত্রলীগের পাভেল গ্রুপের কর্মী। তিনি পৌরশহরের পৌরসভার পন্ডিতপাড়া গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি কলেজে দলীয় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ছাত্রলীগের পাভেল ও পল্লব গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা চলছিল। এরই মধ্যে সোমবার দুপুর ১২টার দিকে লিটু কলেজের ইংরেজি বিভাগের শ্রেণীকক্ষে এলে তার মাথা লক্ষ্য করে গুলি করা হয়।

সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মানবকন্ঠকে বলেন, কলেজের শ্রেণী কক্ষে ছাত্রলীগ কর্মীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। কোনো পক্ষের সঙ্গে সংঘর্ষে লিটু নিহত হয়েছেন তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। গুলিটি কোথা থেকে করা হয়েছে সে বিষয়ে তদন্ত চলছে। নিরাপত্তার স্বার্থে কলেজ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, পুলিশ এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে।

মানবকণ্ঠ/বিএএফ