সাত জেলায় সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী-সন্তানসহ নিহত ১০

সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। মঙ্গলবারও দেশে সাত জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১০ জন। এর মধ্যে সিলেটের বিছানাকান্দিতে ট্রাকচাপায় নিহত হন সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের স্ত্রী ইলোরা পারভীন ও তার ছেলে সাজিদ মিয়া। এ বিষয়ে মানবকণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত পড়ুন—

রাজধানী : সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর বসুন্ধরা গেট এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় আবরার আহমেদ চৌধুরী নামে এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী। আবরার মালিবাগে মা-বাবার সঙ্গে নিজ বাসায় থাকতেন। এ ঘটনার পর নিহতের সহপাঠীরা সকাল থেকে ওই এলাকার সড়ক অবরোধ করেন। এতে বসুন্ধরা গেট এলাকা থেকে রামপুরা পর্যন্ত তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তিনি শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন এবং আগামী তিন মাসের মধ্যে ঘটনাস্থলে একটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের আশ্বাস দেন। এরপর বিকেল ৪টার দিকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয় আবরার আহমেদকে।

সিলেট : বেলা ২টার দিকে বিছানাকান্দি থেকে জাফলং যাওয়ার পথে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের স্ত্রী ইলোরা পারভীন (৩৮) ও তার ছেলে সাজিদ মিয়া (৬)। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। দুপুরে তাদের বহনকারী সিএনজিচালিত অটোরিকশা সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়কের সতিগ্রাম এলাকায় পৌঁছালে একটি ট্রাক চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মা-ছেলে নিহত হন।

আহতরা হলেন- সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট সোজা আহমদের পরিবারের সঙ্গে আসা জনৈক আবদুর রশিদের ছেলে মাহিন ও সজিব। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার ওসি মো. আবদুল জলিল বলেন, গোয়াইনঘাটের সতিগ্রামের মোড়ে সেনা কর্মকর্তার স্ত্রী ও ছেলেকে বহনকারী সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দেয় ট্রাক। তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দুইজন আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে গোয়াইনঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

গাইবান্ধা : মঙ্গলবার সকালে রংপর-বগুড়া মহাসড়কের ধাপেরহাট এলাকার ফাইভ স্টার মোড়ে যাত্রীবাহী বাসে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও সাতজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন— ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার প্রথম ডাঙ্গা গ্রামের আনছের আলীর স্ত্রী ছামছুন্নাহার বেগম (৩৩), ধরলা সাথী গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের স্ত্রী ঝর্ণা বেগম (৩২) ও সিংহসিংলী গ্রামের জয়নাল মিয়ার ছেলে বাসের সুপার ভাইজার রেজাউল করিম (৩৪)।

পুলিশ জানায়, রংপর-বগুড়া মহাসড়কে জাকির পরিবহনের বাসটি ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশ্যে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসে। বাসটি ধাপেরহাট এলাকায় ফাইভ স্টার মোড়ে পোঁছালে বগুড়া থেকে ছেড়ে আসা একটি কাভার্ডভ্যান বাসটিকে সাইড দিতে গিয়ে পেছনের দিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের তিন যাত্রী নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

নাটোর : সকাল ৮টার দিকে সিংড়া উপজেলার শেরকোলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মাসুদ রানা (২৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহত মাসুদ রানা বগুড়ার শিবগঞ্জের রফিকুল ইসলামের ছেলে।

ঝলমলিয়া হাইওয়ে থানা পুলিশের ইনচার্জ এসআই মোজাম্মল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাসুদ রানা ট্রাকযোগে বগুড়া থেকে নাটোরের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে শেরকোল এলাকায় তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে নামেন। পরে চলন্ত ওই ট্রাকে ওঠার সময় পা পিছলে পড়ে গিয়ে ট্রাকের চাকার নিচে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

চুয়াডাঙ্গা : বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুর সড়কের হাতিকাটা এলাকায় কৃষি বিভাগের হর্টিকালচার সেন্টারের একটি সরকারি পিকআপের ধাক্কায় রাজু আহমেদ (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছেন। দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। রাজু আহমেদ হাতিকাটা গ্রামের ডাবলু হোসেনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, হর্টিকালচার সেন্টারের একটি পিকআপ (ঢাকা মেট্রো-ঠ-১৩-০৩৪৫) মেহেরপুর থেকে চুয়াডাঙ্গার দিকে আসার পথে হাতিকাটা নামক এলাকায় পৌছায়। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা বাইসাইকেল চালক রাজুকে ধাক্কা দিলে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। এরপর এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

জামালপুর : দুপুরে জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পুল্লাকান্দি ব্রিজের পূর্বপাশে সিএনজিচালিত অটোরিকশা-মোটরসাইেকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ওয়াজ করুনী মামুন নামে দশম (১৬) শ্রেণির এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে।

নিহত ওয়াজ করুনী মামুন উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের পূর্ব সর্দারপাড়া গ্রামের ডা. আব্দুস সামাদের ছেলে। সে আজিজা কিন্ডার গার্টেনের দশম শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ জানায়, দেওয়ানগঞ্জের দিকে আসা সিএনজিচালিত অটোরিকশাটির সঙ্গে একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংর্ঘষ হয়। এতে রাস্তায় ছিটকে পড়েন মামুন। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে মামুন মারা যায়। দেওয়ানগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশরাফুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বেনাপোল (যশোর) : দুপুর ১২টার দিকে শার্শা উপজেলার নাভারণ-সাতক্ষীরা সড়কের বাগুড়ী এলাকায় ট্রাকের চাপায় লিটন আনছারী (৩২) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। তিনি আনছারী বাগআঁচড়া বাগুড়ী গ্রামের সিদ্দিক আনছারীর বড় ছেলে।

পুলিশ জানায়, লিটন আনছারী বাগআঁচড়া বেলতলা বাজারে যাচ্ছিল। বাগুড়ী মুড়ির মিল স্থানে যশোরগামী মুরগির বাচ্চাবাহী ট্রাকটি (ঢাকা-মেট্রো-ট-১৫-১৭৪৯) একটি রিকশা অতিক্রমের সময় রাস্তার ডানে চাপ দেয়। এ সময় মোটরসাইকেলটি রাস্তার খাদে পড়ে গেলে লিটন রাস্তার ওপর পড়ে যায়। মুহূর্তের মধ্যে ট্রাকটি লিটনের মাথার ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ