সাড়া নেই জামায়াতের হরতালে

হরতাল

জামায়াতের শীর্ষ নেতা ও আমির মকবুল আহমাদসহ কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নেয়ার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সারাদেশে জামায়াতের হরতাল চলছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে হরতাল শুরু হয় চলবে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। তবে ভোর থেকে রাজধানীতে জামায়াত নেতাককর্মীদের কোনো কর্মসূচি চোখে পড়েনি। সড়কে যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। কয়েকটি এলাকায় আবার যানজটের খবরও পাওয়া গেছে। চলছে দূরপাল্লার বাসও।

জামায়াতের ডাকা হরতাল কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে সকাল থেকে বাড়তি পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছে। গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা গেছে। তবে জামায়াতের কোনো নেতাকর্মীকে রাজপথে দেখা যায়নি। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে যানবাহনও। রাস্তায় বাড়ছে মানুষও। দোকানপাটও খুলতে শুরু করেছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হরতালের সমর্থনে দলটির নেতাকর্মীরা রাজধানীর যেসব সম্ভাব্য স্থানে বিক্ষোভ করতে পারে সেসব স্থানে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে রাজধানীসহ সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করে জামায়াত। এ ছাড়া বুধবার সারা দেশে বিক্ষোভ ও শুক্রবার গ্রেফতারকৃত নেতাদের মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপী দোয়া কর্মসূচির ঘোষণা করেছেন ভারপ্রাপ্ত আমির মুজিবুর রহমান।

তিনি বলেন, জামায়াতের আমির মকবুল আহমাদ, নায়েবে আমির অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানসহ জামায়াতের নেতাদের পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করেছে।

তাদের বিরুদ্ধে সাজানো মিথ্যা মামলা দিয়ে প্রত্যেককে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার প্রতিবাদে ও তাদের মুক্তির দাবিতে উল্লিখিত কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান এসব কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.