সরকার প্রধান বিচারপতিকে অবসরে যেতে বাধ্য করেছে: রিজভী

সরকার গুন্ডামি করে প্রধান বিচারপতিকে অবসরে যেতে বাধ্য করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, সরকার নিজেদের ইচ্ছা পূরণে ও রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে দমন করতে এখন আদালতকে ব্যবহার করবে। বিরোধীদের শাস্তি দিতে আদালতকে কসাইখানায় পরিণত করবে।

মঙ্গলবার দুপুরে কুড়িগ্রাম শহরের সরদারপাড়ায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে রিজভী এ মন্তব্য করেন।

নির্বাচন সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন যথার্থই বলেছেন শেখ হাসিনার অধীনে কখনোই অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না। শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন হলে তা হবে হাসিনা মার্কা ও ফেনী মার্কা নির্বাচন। রাত ৩টায় ব্যালট বাক্স পূর্ণ হবে এবং বিরোধী দলের প্রার্থীরা মনোনয়ন জমা দিতে পারবে না। ফলে তার অধীনে ক্ষমতার পালা বদল হবে না।

রিজভী বলেন, আমরা নির্বাচনে যাব নির্দলীয় সরকারের অধীনে যে সহায়ক সরকার তার অধীনেই আমরা নির্বাচনে যাব। আমরা শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাব না কারণ তারা রক্তাক্ত পরিবেশ তৈরি করবে এবং ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে যেতে দেবে না।

এ ছাড়াও কুড়িগ্রামের দারিদ্রতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখানে দুর্ভিক্ষ প্রবণ অবস্থা বিরাজ করলেও সরকারের দিক থেকে কোন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না।

এ সময় জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, শফিকুল ইসলাম বেবু, সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রানা, যুগ্ম সম্পাদক সোহেল হোসনাইন কায়কোবাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক নুর ইসলাম নুরুসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ