সমালোচনা না থাকলে কাজের মূল্যায়ন জানা যায় না: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

সমালোচনা না থাকলে কাজের মূল্যায়ন জানা যায় না: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

সমালোচনা না থাকলে কাজের মূল্যায়ন সম্পর্কে জানা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, এক্ষেত্রে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন।

রোববার প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) সেমিনার কক্ষে সচিবালয় বিটে কর্মরত সাংবাদিকদের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশ ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের উদ্যোগে এই কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

পিআইবির মহাপরিচালক মীর মো. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টাস ফোরাম (বিএসআরএফ) সভাপতি শ্যামল সরকার, পিআইবির প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ (যুগ্ম সচিব) ইলিয়াস ভূঁইয়া।

প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, একটি জাতি বা দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে রাজনৈতিক ব্যক্তিরা সিদ্ধান্ত নেন, সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন করেন আমলারা। আর এসব কাজের সমালোচনা করে আমাদের দোষ বা ত্রুটিগুলো ধরিয়ে দেয় সাংবাদিকরা। এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের আধুনিক প্রযুক্তির সঙ্গে আরো সম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে। কারণ প্রযুক্তি ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, আগামীতে বাংলাদেশের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। তাই সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের আরো সচেতন হওয়ার পাশাপাশি প্রযুক্তি নির্ভরতা বাড়াতে হবে। আধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে দক্ষতা বাড়াতে এটুআই কাজ করে যাচ্ছে।

‘আমরা যতো দ্রুত দক্ষতা বাড়াতে পারবো আমরা ততো দ্রুত সরকার নির্ধারিত কাক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সরকার ও সাধারণ মানুষের মধ্যে সংযোগ তৈরি করে সাংবাদিক। এছাড়া গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি সাধারণ মানুষকে জানাতে হলে সাংবাদিক, ব্যুরোক্র্যাট ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মধ্যে সেতুবন্ধন থাকা জরুরি। এই সেতু সমাজ ও দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যায়। এখানে বৈরী সস্পর্ক থাকলে উন্নয়ন করা সম্ভব না।

পিআইবির মহাপরিচালক মীর মো. নজরুল ইসলাম বলেন, সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে তথ্যের যথাযথ মাপকাঠি বজায় রাখার পরামর্শ। এ ক্ষেত্রে ডিজিটাল হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ দক্ষতা বাড়াতে এ ধরনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা আরো বাড়ানো হবে।

মানবকণ্ঠ/এসএস