সন্ধ্যা ৭টার মধ্যেই ডিনার সেরে ফেলুন

সন্ধ্যা ৭টার মধ্যেই ডিনার সেরে ফেলুন

অনেকেরই আজকাল ঘুমোতে যেতে যেতে মধ্যরাত পেরিয়ে যায়। আর ডিনারের সময়ও হয়ে যায় রাত সাড়ে ১০টা-১১টা। জানেন কি ওজন বেড়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ এই দেরিতে খাওয়া? ওজন ধরে রাখতে কেন ৭টার মধ্যে ডিনার সেরে ফেলার পরামর্শ দেন পুষ্টিবিদরা। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে খাবার খাওয়ার অভ্যাস করলে আমাদের সামগ্রিক ক্যালোরি খাওয়ার পরিমাণ অনেক কমে যাবে। যেহেতু আমরা দিনের কম সময় খাবার খাচ্ছি তাই স্বাভাবিকভাবেই যেমন ক্যালোরি গ্রহণ কম হবে, তেমনই রাতে অনেকক্ষণ না খাওয়ার ফলে মেদ ঝরানোও সহজ হবে।

ভারতীয় ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশনিস্ট রূপালি দত্ত মনে করেন, তাড়াতাড়ি ডিনার করলে খাবার যেমন হজম করা সহজ হয়, তেমনই তা ওজন কমাতে সাহায্য করে। যত আমরা দেরি করে খাবার খাব হজম হতে তত দেরি হবে। রাতে ঘুমোতে যাওয়ার ঠিক আগেই ভরপেট খেলে হজমে সমস্যা হয়। যার ফলে অ্যাসিডিটি, বুক জ্বালা হতে পারে। বেশি রাতে খেলে শরীর সক্রিয় ও সজাগ হয়ে ওঠে। ফলে ঘুম আসতে সমস্যা হয়। ভাল ঘুম না হওয়ায় সকালে ক্লান্ত লাগে। সন্ধ্যায় ডিনার করলে শুধু হজম ভালো হয় তাই নয়, ঘুমও ভালো হয়। সকালে উঠে অনেক বেশি এনার্জি পাবেন কাজে।

ডিনারে আমরা যত বেশি কার্বোহাইড্রেট ও সোডিয়াম খেতে থাকি আমাদের হার্ট ও রক্তনালীতে রক্তচাপ বাড়ার আশঙ্কা তত বাড়তে থাকে। যারা হাইপারটেনশনের সমস্যায় ভুগছেন তাদের বেশি করে জটিল কার্বোহাইড্রেট, ওটস, ব্রাউন রাইস ও আটার রুটি খাওয়া উচিত।

বিশেষজ্ঞদের মতে, রাতের খাবার খাওয়ার দু’ ঘণ্টার মধ্যেই ঘুমোতে যেতে হবে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা মেনে চলার প্রয়োজন নেই। সাধারণত যারা বেশি রাতে খাবার খান তাদের মধ্যে হাইপারটেনশনে ভোগার প্রবণতা দেখা যায়। আবার ৭টার মধ্যে ডিনার সেরে ফেলার পর যদি রাতে খিদে পায় তাহলে উপোস করারও প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এই সময় লো-ক্যালোরির কোনো খাবার খেতে পারেন। যদি নিয়মিতই আপনার বেশি রাতের দিকে খিদে পেয়ে থাকে তাহলে সারাদিনের খাওয়া-দাওয়ার প্রতি বিশেষ নজর দিন। সারাদিন ৪-৬ বার অল্প পরিমাণ খেলে এবং সন্ধ্যা ৬-৭টার মধ্যে রাতের খাবার খেয়ে নিলে বেশি রাতে খিদে পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। – আনন্দবাজার পত্রিকা

মানবকণ্ঠ/এসএস