সন্দেহভাজন মসজিদ হামলাকারী ব্রেন্টনের ঘোষণাপত্রে ট্রাম্পের প্রশংসা

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার আগে প্রকাশিত ইশতেহারে(ঘোষণাপত্র) মার্কিন প্রসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশংসা করেছেন অভিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। সেই সঙ্গে ২০১১ সালে নরওয়েতে হামলা চালিয়ে ৭৭ জনকে হত্যা করা ডানপন্থী নেতা আন্দ্রেস ব্রেইভিরেরও প্রশংসা করেছেন তিনি । এমন খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা। 

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, ৭৪ পৃষ্ঠার ইশতেহারে(ঘোষণাপত্র) ব্রেন্টন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে শ্বেতাঙ্গদের পরিচয় এবং সাধারণ উদ্দেশ্য নবায়ন করার একটি প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ২৮ বছর বয়সী ব্রেন্টন নরওয়েতে হামলা চালানো ডানপন্থী নেতা আন্দ্রেস ব্রেইভিকের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত যোগাযোগের কথা স্বীকার করেছেন এবং তার কাছে থেকেই গণহত্যা চালানোর জন্য উদ্বুদ্ধ হয়েছেন বলে ইশতেহারে বলেছেন।এ ছাড়া ইশতেহারে অভিবাসন এবং বহুসংস্কৃতিবাদের বিষয়ে আপত্তি জানিয়েছেন ব্রেন্টন ।এ ছাড়া শ্বেতাঙ্গ, ইউরোপিয়ান এবং পশ্চিমা বিশ্বের হারাতে বসা সংস্কৃতি নিয়েও সমালোচনা করেছেন ।

তবে ব্রেন্টন প্রশংসা করলেও নিউজিল্যান্ড হামলায় মোটেও খুশি নন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একটি টুইট বার্তায় ট্রাম্প এই হামলাকে ভয়াবহ গণহত্যা উল্লেখ করেছেন। এদিকে হামলার আগে ব্রেন্টনের প্রকাশিত ইশতেহারকে ঘৃণ্য কার্যকলাপ হিসেবে উল্লেখ করেছেন অস্ট্রেলিয়ান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। 

প্রসঙ্গত, নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় বন্দুকধারীর হামলায় ৪৯জন নিহত এবং অন্তত ৪৮ জন আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে তিন বাংলাদেশি রয়েছেন। এর মধ্যে ড. আব্দুস সামাদ নামে একজন অধ্যাপকও রয়েছেন।

মানবকণ্ঠ/এআর

Leave a Reply

Your email address will not be published.