যৌতুক মামলা

শেষবারের মতো আরাফাত সানির জামিন

আরাফাত সানি

যৌতুকের জন্য মারধরের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিনের মেয়াদ শেষবারের মতো বৃদ্ধি করেছেন আদালত। সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জাকির হোসেন টিপু এ আদেশ দেন।

সোমবার সানির জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় তার আইনজীবী ফের জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করেন। তবে সানির স্ত্রী নাসরিন সুলতানা তার জামিন বাতিলের আবেদন করেন। এ সময় নাসরিন সুলতানা বলেন, বার বার সমঝোতার জন্য সময় নিয়েও সানি সমঝোতা করছেন না।

সানির আইনজীবী এম জুয়েল আহমেদ জানান, রোববার সানির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সানি চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ায় আদালতে হাজির হতে পারেননি। তাই সময় আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক সানির জামিন অন্তবর্তীকালীন থাকায় তা নাকচ করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে অভিযোগ গঠন করেন।

এম জুয়েল আহমেদ বলেন, সোমবার সানি নিজেই স্বেচ্ছায় আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করেন।

প্রসঙ্গত, গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৪নং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুকের জন্য মারধরের অভিযোগে ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও তার মা নারগিস আক্তারের বিরুদ্ধে তৃতীয় মামলা করেন তার স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা।

আদালত পরবর্তীতে মামলাটি এজাহার হিসেবে নেয়ার জন্য মোহাম্মদপুর থানাকে নির্দেশ দেন। ৮ ফেব্রুয়ারি সানি ও তার মা নারগিস আক্তারের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি এজাহার হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। বর্তমানে মামলাটি তদন্তাধীন। নাসরিন সুলতানার দায়ের করা মামলায় ২২ জানুয়ারি গ্রেফতার হন সানি। ৫৩ দিন কারাগারে থাকার পর ১৫ মার্চ জামিনে মুক্তি পান তিনি।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.