‘শেখ হাসিনা’ অর্কিড দেশবাসীর জন্য উৎসর্গ

‘শেখ হাসিনা’ অর্কিড

সিঙ্গাপুরের বিখ্যাত বোটানিকাল গার্ডেনে একটি অর্কিডের নামকরণ হয়েছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে। মঙ্গলবার সকালে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ ওই বোটানিকাল গার্ডেনের অর্কিড বাগানে বঙ্গবন্ধু কন্যা নিজেই Dendrobium Sheikh Hasina এর উদ্বোধন করেন।

দুই নাতি ও নাতনিকে সঙ্গে নিয়ে ‘Dendrobium Sheikh Hasina’ নামফলক বসিয়ে ওই অর্কিডের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। পরে তিনি অর্কিড বাগান ঘুরে দেখেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই বিরল সম্মাননা ভাগ করে নিয়েছেন দেশবাসীর সঙ্গে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি মনে করি এটা বাংলাদেশের জন্য বিশাল সম্মানের। এ ফুল তিনি উৎসর্গ করলেন দেশবাসীর উদ্দেশ্যে। এখানে আসতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত। আমি চাই, বাংলাদেশ এগিয়ে যাক। পুরো বিশ্বে বাংলাদেশ সুন্দর অবস্থানে আসুক।

শেখ হাসিনা বলেন, ফুল সৌন্দর্যের প্রতীক। ব্যবসা আর সৌন্দর্য… ভালবাসা নিবেদন সব ক্ষেত্রেই ফুল ব্যবহার করা হয়। বাংলাদেশেও এখন ফুলের চাষ বেড়েছে।

ডেভিড লিম জানান, সিঙ্গাপুরের রীতি অনুসারে ১৯৫৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত বিভিন্ন দেশের প্রায় আড়াইশ রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের নামে স্থানীয় অর্কিডের নামকরণ করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবাসহ চীনের প্রেসিডেন্ট এবং জাপানের সম্রাটের নামেও অর্কিডের নামকরণ করা হয়েছে সিঙ্গাপুরে।

Dendrobium Sunplaza Park এবং Dendrobium Seletar Chocolat জাতের সংকর ঘটিয়ে নতুন এই প্রজাতির উদ্ভাবন করেছেন সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল অর্কিড গার্ডেন নার্সারির ব্যবস্থাপক ডেভিড লিম।

১৮৫৯ সালে প্রতিষ্ঠিত সিঙ্গাপুর বোটানিক্যাল গার্ডেন ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের একটি অংশ। এর অনেকগুলো অংশের অন্যতম একটি ন্যাশনাল অর্কিড গার্ডেন। এখানে প্রায় এক হাজার প্রজাতির অর্কিড সংরক্ষণ করা হয়েছে। রয়েছে দুই হাজার প্রজাতির হাইব্রিড অর্কিডও। এই হাইব্রিড অর্কিড তৈরির গবেষণা করা হয় ন্যাশনাল অর্কিড গার্ডেনে। এখানেই গবেষণা করা হয়েছে শেখ হাসিনা নামে অর্কিডটির।

গাঢ় বেগুনী রঙের শেখ হাসিনা অর্কিডটা সম্পর্কে গবেষকরা বলছেন এ অর্কিডটা দৃঢ়তা ও কোমলতার সঠিক মেলবন্ধন। এ অর্কিডটি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রকৃতিকে সঠিকভাবে প্রকাশ করে। তার দেশের মানুষের প্রতি সংবেদনশীলতা ও দক্ষ রাষ্ট্র পরিচালনার গুণের কথা যেন এক বাক্যে বলে দেয় এই অর্কিডটি।

ন্যাশনাল অর্কিড গার্ডেনের ভিআইপি গার্ডেনে শোভা পাচ্ছে অর্কিডের এই বিশেষ প্রজাতিটি। এর আগেও সিঙ্গাপুর তার আমন্ত্রিত রাষ্ট্রীয় অতিথিদের সম্মানে অর্কিডের নাম অবমুক্ত করেছে। ১৯৫৭ সাল থেকে সিঙ্গাপুর সরকার অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানোর এ প্রথা শুরু করেন। গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সম্মানে তৈরি হাইব্রিড জাতের অর্কিডগুলোকে ভিআইপি গার্ডেনে প্রদর্শন করা হয়।

২০১৭ সাল পর্যন্ত ন্যাশনাল অর্কিড গার্ডেনে ২০০টি এমন অর্কিড ছিল যাদের নাম কোনো রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির নাম। এখানে আরো আছে, লৌহমানবী খ্যাত সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচারের অর্কিড। আছে ব্রিটিশ রাজপুত্র উইলিয়াম ও রাজবধূ ক্যাথরিনের নাম অনুসারে ‘উইলিয়াম-ক্যাথরিন’ অর্কিড। এসবের পাশে আজ থেকে শোভা পাবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে, ‘শেখ হাসিনা’ অর্কিড।

মানবকণ্ঠ/এসএস