শুক্রবার থেকে বন্ধ থাকবে মোবাইল ব্যাংকিং

একাদশ নির্বাচন উপলক্ষে শুক্রবার বিকেল ৫টা থেকে ভোটগ্রহণ শেষ না হওয়া পর্যন্ত মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এদিকে, সাপ্তাহিক ছুটি, নির্বাচনে সাধারণ ছুটি এবং ব্যাংক হলি ডে উপলক্ষে শুক্রবার থেকে টানা চারদিন বন্ধ থাকবে ব্যাংকের লেনদেনও। এ অবস্থায় ব্যাংকের এটিএম বুথে পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। পাশাপাশি এটিএম বুথ, পয়েন্ট অব সেল (পিওএস), ই-পেমেন্ট গেটওয়ের মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন লেনদেনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে আলাদা আলাদা দুটি প্রজ্ঞাপন জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ‘মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) মাধ্যমে লেনদেন পরিচালনা সাময়িকভাবে বন্ধকরণ’ শীর্ষক প্রজ্ঞাপনটি দেশের সব মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো প্রজ্ঞাপনে মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশে কার্যরত সব মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দানকারী প্রতিষ্ঠানসমূহকে ২৮ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেল ৫টা হতে ৩০ ডিসেম্বর রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে সব ধরনের লেনদেন পরিচালনা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করার জন্য নির্দেশ দেয়া হলো। তবে ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট হতে দিনে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা লেনদেনের সুযোগ রেখে ২৯ ডিসেম্বর শনিবার বিকেল ৫টা হতে ৩০ ডিসেম্বর রোববার বিকেল ৫টা পর্যন্ত সীমিত আকারে মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিস চালু রাখা যেতে পারে।

প্রজ্ঞাপনে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস প্রদানকারী ব্যাংক/সাবসিডিয়ারিসমূহকে এই বিষয়ে অবিলম্বে প্রয়োজনীয় কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ এবং বিষয়টি সম্পর্কে গ্রাহক তথা সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে অবহিত করতে বলা হয়েছে।

দেশের সব তফসিলি ব্যাংকগুলোকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো অপর এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম) বুথের ক্ষেত্রে সার্বক্ষণিক এটিএম সেবা নিশ্চিত করতে হবে। এটিএম বুথে কোনো ধরনের কারিগরি ত্রুটি দেখা দিলে দ্রুততম সময়ে সমাধান করতে হবে। এছাড়া পর্যাপ্ত টাকা সরবরাহ নিশ্চিতের পাশাপাশি বুথে সার্বক্ষণিক পাহারাদাদের সতর্ক অবস্থানসহ অন্যান্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পয়েন্ট অব সেল (পিওএস) এর ক্ষেত্রে সার্বক্ষণিক পিওএস সেবা নিশ্চিত করা এবং জালিয়াতি রোধে মার্চেন্ট এবং গ্রাহককে সচেতন করতে হবে। ই-পেমেন্ট গেটওয়ের ক্ষেত্রে কার্ডভিক্তিক ‘কার্ড নট প্রেজেন্ট’ লেনদেনের ক্ষেত্রে Two factor Autentication ( 2 FA) ব্যবস্থা চালু রাখতে হবে।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, ভোটকে সামনে রেখে নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে এই ‘নির্দিষ্ট’ সময়ের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ রাখতে বলেছে বাংলাদেশ। তবে এসময়ে এটিএম বুথে পর্যাপ্ত অর্থ সরবরাহের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যাতে গ্রাহকদের কোন ধরনের অসুবিধা না হয়।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ