শাহনাজ রহমতুল্লাহর জানাজা বাদ জোহর, দাফন বনানীতে

কিংবদন্তী সঙ্গীতশিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহর জানাজা আজ রোববার বাদ জোহর রাজধানীর বারিধারার একটি মসজিদে হবে। জানাজা শেষে এ দিন বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে। সংগীতশিল্পী শফিক তুহিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার রাত ১১টার দিকে রাজধানীর বারিধারস্থ নিজ বাসাতেই হঠাৎ অসুস্থবোধ করেন শাহনাজ রহমতুল্লাহ। তবে হাসপাতালে নেয়ার আগেই রাত ১টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। এসময় তার পাশে ছিলেন স্বামী রহমতুল্লাহ।

১৯৫২ সালে জন্মগ্রহণ করেন বাংলা সংগীতের এই কিংবদন্তি শিল্পী। মাত্র ১১ বছর বয়সে রেডিও এবং চলচ্চিত্রের গানে তার যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৩ সালে। ‘নতুন সুর’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে গান গাওয়া শুরু করেছিলেন তিনি। ১৯৬৪ সালে টিভিতে প্রথম গান করেন। পাকিস্তানে থাকার সুবাদে করাচি টিভিসহ উর্দু ছবিতেও অনেক গান করেছেন এই শিল্পী। গান শিখেছেন গজল সম্রাট মেহেদী হাসানের কাছে।

শাহনাজ রহমতুল্লাহর ভাই আনোয়ার পারভেজ ছিলেন এদেশের প্রখ্যাত একজন সুরকার এবং সংগীত পরিচালক। আরেক ভাই জাফর ইকবাল ছিলেন এদেশের চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক।

এক নদী রক্ত পেরিয়ে, একবার যেতে দে না আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়ে, একতারা তুই দেশের কথা বলরে‌ এবার বল, প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ-এর মতো বেশকিছু দেশাত্মবোধক গানের জন্য সর্বসাধারণের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি।

সঙ্গীতে অবদানের জন্য তিনি একুশে পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী পুরস্কার, বাচসাস পুরস্কারসহ বহু সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। বিবিসির জরিপে সর্বকালের সেরা ২০টি বাংলা গানের তালিকায় শাহনাজ রহমতুল্লাহ’র গাওয়া চারটি গান স্থান পায়।

মানবকণ্ঠ/এএম