রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সহযোগিতা পেতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনেও সহযোগিতা করবে দেশটি। রোববার সচিবালয়ে বাংলাদেশ-ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের ষষ্ঠ দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের একথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ-ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের এই বৈঠকে নিরাপত্তা সহযোগিতা বিশেষ করে সন্ত্রাসবাদ দমনে সহযোগিতা, সীমান্ত হত্যা বন্ধ, অস্ত্র, মাদক ও অবৈধ মুদ্রাপাচারসহ আন্তঃসীমান্ত অপরাধ দমনের বিষয়গুলো উঠে আসে।

সচিবালয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় এ বৈঠক শুরু হয় এবং বৈঠক শেষ হয় বেলা ১২টায়। বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এবং ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বৈঠকে দুই দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের এটি নিয়মিত বৈঠক। বৈঠক শেষে দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে সংশোধিত ভ্রমণ চুক্তি ২০১৮ সই করেন দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

জানা গেছে, সভায় ভিসা সহজিকরণ চুক্তি, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রশিক্ষণ, সন্ত্রাস দমন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান, মাদক প্রতিরোধ, সীমান্ত রাস্তা নির্মাণ, বন্দি বিনিময় চুক্তি আরও কার্যকর করাসহ এসব বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ানোর কথা বলা হয়।

এছাড়া ভিসার ক্ষেত্রে বয়স্ক ও মুক্তিযোদ্ধারের বিশেষ সহযোগিতা এবং চিকিৎসা ভিসা যেন আরও সহজ করা যায় এ বিষয়ে কথা হয়।

প্রসঙ্গত, ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনদিনের সফরে ঢাকায় আসেন। শনিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এরপর তিনি যমুনা ফিউচার পার্কে একটি নতুন, আধুনিক ও সমন্বিত ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁনের সঙ্গে তিনি বিশেষ বিমানে রাজশাহী সফর করেন এবং যৌথভাবে রাজশাহীর সারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ভবন উদ্বোধন করেন। রোববার সন্ধ্যায় দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার।

মানবকণ্ঠ/এসএস