রামপালবিরোধীদের মন্তব্য জ্যোতিষ নির্ভর: হাছান মাহমুদ

রামপালবিরোধীরা ষড়যন্ত্র ও জ্যোতিষ নির্ভর মন্তব্য করছেন বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, রামপাল নিয়ে যারা অভিযোগ করছেন, তাদের শীর্ষ ব্যক্তিদের অভিযোগ অনুমান কিংবা আবেগ নির্ভর নয়, ষড়যন্ত্র নির্ভর। যারা আবেগের কারণে আন্দোলনে যুক্ত হয়েছেন। তাদের আমরা সন্মান জানাই। কিন্তু যাদের অভিযোগ জ্যোতিষ নির্ভর, তাদেরকে বিজ্ঞান নির্ভর কোন যুক্তি উপস্থাপনের আহ্বান জানাই।

বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সংবাদ সম্মেলনে দেয়া সুলতানা কামালের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় হাছান মাহমুদ বলেন, সুলতানা কামালের প্রতি সন্মান রেখে আমি বলছি, তিনিসহ যারা এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, তারাই জনগণকে বিভ্রান্ত করছেন। এক্সিম ব্যাংক ভারত সরকারের অনুমতি নিয়ে আন্তর্জাতিক চুক্তির মাধ্যমে অর্থায়ন করছে। তাই এটা নিয়ে প্রশ্ন তোলা অবান্তর।
তিনি বলেন, রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্রের আশাপাশের এলাকার পরিবেশ রক্ষায় প্রথমে সুপার ক্রিটিকাল পদ্ধতি ব্যবহার করার কথা ছিল। কিন্তু সরকার অধিকতর নিরাপত্তার জন্য আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল পদ্ধতি ব্যবহার করছে। এজন্য যন্ত্রপাতি আমদানি করছে সরকার।
রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিঃসরিত ছাই কিনতে বাংলাদেশের বিভিন্ন সিমেন্ট কারখানা এখনই যোগাযোগ করছে বলেও জানান তিনি।
সুন্দরবন রক্ষা কমিটির সংবাদ সম্মেলনে ভাড়াটে বিশেষজ্ঞ ব্যবহার করা হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন হাছান।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফরিদুন্নাহার লাইলী, আবদুস সোবহান গোলাপ, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আব্দুস সবুর, আমিনুল ইসলাম আমিন, বিপ্লব বড়ুয়া, গোলাম রাব্বানী চিনু, রিয়াজুল কবির কাওছার, মারুফা আক্তার পপি।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ