রাতে দেশে আসছে গোলাম সারওয়ারের মরদেহ

সমকাল সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম সারওয়ারের মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে মঙ্গলবার দেশে আনা হবে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে হজরত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের এসকিউ-৪৪৬ ফ্লাইটে তার মরদেহ দেশে আনা হবে। এরপর মরদেহ উত্তরার বাসভবনে নেয়া হবে। পরে রাতে তার মরদেহ বারডেম মরচুয়ারিতে রাখা হবে।

বুধবার তার জন্মস্থান বরিশাল বানারীপাড়ায় মরদেহ নেয়া হবে। সেখান থেকে রাতে ঢাকায় এনে আবার মুরচ্যুারিতে রাখা হবে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় প্রিয় কর্মস্থল সমকাল কার্যালয়, ১১টা থেকে সাড়ে ১২টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, বাদ জোহর জাতীয় প্রেসক্লাবে শেষ শ্রদ্ধা ও জানাযা শেষে বাদ আসর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী গোরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

সমকাল সম্পাদক, সম্পাদক পরিষদের সভাপতি এবং প্রেস ইনস্টিটিউটের (পিআইবি) চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ার সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। দেশবরেণ্য এই সাংবাদিক মহাসিন্ধুর ওপারে ঠাঁই নেয়ার সঙ্গে সঙ্গে এ দেশের সংবাদপত্র ইতিহাসে চিরস্মরণীয়দের সারিতে নিশ্চিতভাবে অন্তর্ভুক্ত হলেন।

পাঁচ দশকের বেশি সময়জুড়ে নিরলস শ্রম, কঠোর অভিনিবেশ, অসামান্য পেশাদারিত্বের মধ্যদিয়ে সংবাদপত্রকে প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলে জাতির পথনির্দেশকের ভূমিকায় অবতীর্ণ করার ক্ষেত্রে তিনি অক্ষয় বাতিঘরের ভূমিকা পালন করেন। কমপক্ষে চার প্রজন্মের সাংবাদিকের বন্ধু, দার্শনিক ও পথপ্রদর্শক এই ব্যক্তিত্ব স্বীয় কর্ম ও কীর্তির ধারাবাহিকতায় মহাসিন্ধুর ওপার থেকে অবিনশ্বর আলো বিতরণ করে যাবেন বলে দেশের সংবাদপত্র বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন পত্রিকা ও টেলিভিশনে কর্মরত সব সহকর্মী মনে করেন।

সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আর নেই

গোলাম সারওয়ারের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। পৃথক শোকবার্তায় তারা মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। প্রিয় সম্পাদকের মৃত্যুতে সমকালের প্রকাশক এ. কে. আজাদসহ সমকাল পরিবার গভীরভাবে শোকাহত। সোমবার রাত থেকেই সমকালের সহকর্মীরা কালোব্যাজ ধারণ করেছেন।

৭৫ বছর বয়সী গোলাম সারওয়ার মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়েসহ অগণিত গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। গতকাল সোমবার দুপুরের পর থেকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন গোলাম সারওয়ারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। বিকেল ৫টায় লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয় তাকে। তখন চিকিৎসকরা তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছিলেন। রাত ৯টা ২৫ মিনিটে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত ঘোষণা করে।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ/এসএস