রাঙ্গামাটিতে আওয়ামী লীগ সভাপতিকে গুলি করে হত্যা

রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলায় সুরাত কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে (৫৮) নামে এক আওয়ামী লীগ সভাপতিকে গুলি করে হত্যা করেছেন দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার আলিকিয়ং এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সুরাত কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তার বাড়ি একই এলাকায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইকবাল জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। বর্তমানে মরদেহ উপজেলা সদরে আছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মুসা মাতব্বর জানান, আধিপত্য বিস্তারের জেরে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) দুর্বৃত্তরাই সুরাত কান্তিকে গুলি করে হত্যা করেছেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে জনসংহতি সমিতির জেলা সম্পাদক নীলোৎপল খীসা বলেন, আমরা এ ধরনের রাজনীতি করি না। এসব ঘটনার সাথে আমাদের জড়ানোর চেষ্টা আসলে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন প্রচেষ্টা।

রাঙ্গামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর বলেন, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আলিখিয়ং এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা ফারুয়া ইউনিয়ন থেকে নৌকায় করে বিলাইছড়িতে ফিরছিছেন। পথে একদল লোক তাকে গুলি করে হত্যা করে।

প্রসঙ্গত, বাঘাইছড়িতে উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকারীদের উপর সশস্ত্র হামলা চালিয়ে সাতজনকে হত্যার ঘটনার পর ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটলো।

মানবকণ্ঠ/এএম