যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা না ওঠালে বিকল্প ব্যবস্থা: উত্তর কোরিয়া

নতুন করে আবার পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রতিশ্রুতি দিলেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন। পাশাপাশি  যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে জানালেন নিষেধাজ্ঞা চালিয়ে যাওয়া হলে বিকল্প পথ খুঁজবেন তিনি। মঙ্গলবার বর্ষবরণ উপলক্ষে দেয়া এক ভাষণে এ সব কথা বলেন কিম জং উন।খবর আল জাজিরার। 

নর্থ স্টেট টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে কিম বলেন, যদি ওয়াশিংটন সহযোগিতা করে তাহলে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হবে। তবে যদি যুক্তরাষ্ট্র আমাদের জনগণের ধৈর্যের বিষয়ে ভুল আন্দাজ করে আমাদের ওপর কিছু চাপিয়ে দেয় এবং নিষেধাজ্ঞা চালিয়ে যায় এবং সারা দুনিয়ার সামনে তারা যে প্রতিজ্ঞা করেছিল তা থেকে সরে আসে তাহলে উত্তর কোরিয়ার কাছে নতুন কোন পথ খোঁজা ছাড়া অন্য কোন উপায় থাকবেনা। আর এটা হবে আমাদের সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য।

এই ভাষণে কিম জং উন গত জুনে সিঙ্গাপুরে তার এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে হওয়া বৈঠকটির কথা উল্লেখ করেন। ওই বৈঠকটি ট্রাম্প এবং কিম উভয়ই বলেছিল যে তাদের মধ্যে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। সিংগাপুরের ওই বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র এবং উত্তর কোরিয়ার মধ্যে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে একটি চুক্তি হলেও ঠিক কি ভাবে সেটি হবে তা নিয়ে কিছু বলা হয়নি।

ভাষণে ট্রাম্পের সঙ্গে ফের বৈঠকের ইচ্ছা পোষণ করে কিম বলেন, আবারো যে কোন সময় মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকে বসতে আমি প্রস্তুত এবং আমরা সকলভাবে এই বৈঠক আয়োজনের চেষ্টা করবো যাতে এমন একটি ফল বের হয়ে আসে যেটা সকল আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় সমর্থন করবে।

এ ছাড়া ভাষণে দক্ষিণ কোরিয়াকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সেনা মহড়া বন্ধ করার আহ্বানও জানান কিম।

প্রসঙ্গত, ১৯৫০ থেকে ১৯৫৩ সাল পর্যন্ত কোরিয়াতে যে যুদ্ধ হয়েছিল সেটির আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি এবং নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া এই দুটি দাবি মূলত যুক্তরাষ্ট্রের কাছে করে আসছে উত্তর কোরিয়া। আর তা বাস্তবায়ন হলেই পিয়ংইয়ং’র পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে তারা পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রক্রিয়ায় এগোবে।

মানবকণ্ঠ/এআর