যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় নিহত ৫

যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো এবং কলোরাডোতে বন্দুক হামলায় ৫ জন নিহত হয়েছেন।  সোমবার চালানো এই হামলায় আহত হয়েছেন আরো তিন জন। খবর আল জাজিরার।

শিকাগোতে হামলার বিষয়ে পুলিশ কর্মকর্তা এডি জনসন বলেন, শিকাগোর মেরসি হাসপাতালে বন্দুক যুদ্ধে হাসপাতালটির দুই কর্মী সহ ৪ জন নিহত হয়েছেন. এদের মধ্যে হাসপাতালের দুই জন নারী কর্মী, একজন পুলিশ অফিসার এবং হামলাকারী রয়েছেন।

জনসন বলেন, হাসপাতালের বাইরের দুই বন্ধুর মধ্যে পারকিং লটে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে গোলাগুলির শুরু হয়। দুই বন্ধুর কথা কাটাকাটির সময় আরেকজন মধ্যস্থতা করতে  এলে হামলাকারী কোমর থেকে পিস্তল বের করে হামলা শুরু করে।হামলা করার পর হামলাকারী গুলি চালাতে চালাতে হাসপাতালটির ভেতরে প্রবেশ করে এবং সেখানে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তিনি নিহত হন। এই হামলায় ওই হামলাকারীর প্রেমিকাও নিহত হয়েছেন।

হামলায় নিহত হওয়া পুলিশ অফিসারের নাম সামুয়েল জিমেনেয । এই পুলিশ অফিসারের মৃত্যুর খবরটি শিকাগো পুলিশের পক্ষ থেকে দেয়া এই টুইটার বার্তায় নিশ্চিত করা হয়েছে।

 ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামালা চালানোর পরপরই খুব দ্রুত হাসাপাতালে থাকা রোগীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয় এবং পুলিশ পুরো ঘটনাস্থল ঘিরে ফেলে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেও এই বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এদিকে শিকাগোতে হামলার দিনে আরেকটি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো অঙ্গরাজ্যে। সেখানে ১ জন নিহত হয়েছেন এবং ৩ জন আহত হয়েছেন। তবে এই ঘটনায় পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।

প্রসঙ্গত, গত ২ অক্টোবর ফ্লোরিডায় ইয়োগা ক্লাসে বন্দুক হামলায় ৩ জন নিহত হয়েছিলেন। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের পিটার্সবার্গে ইহুদিদের একটি উপাসনালয়ে হামলায় ১১ জন নিহত এবং ৬ জন আহত হন। যুক্তরাষ্ট্রের বন্দুক সহিংসতা আর্কাইভের দেয়া তথ্য অনুযায়ী এই বছর দেশটিতে প্রায় ১৩ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবছর গড়ে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ বন্দুক হামলায় নিহত হন।

মানবকণ্ঠ/এআর