যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব গ্রেফতার

চাঁদাবাজির একটি মামলায় যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাত ৩টার দিকে মিরপুর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন।

মিরপুর থানার ডিউটি অফিসার এএসআই রিয়াজুল ইসলাম জানান, দুলাল নামের এক ব্যক্তি গতকাল থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে মামলা করেছেন। ওই মামলায় বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ড চাওয়া হতে পারে।যাত্রী কল্যাণ সমিতি দেশের পরিবহন সেক্টর নিয়ে কাজ করছে। সড়ক দুর্ঘটনা, গণপরিবহনের নানা অনিয়ম তুলে ধরে তার বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরি করে আসছে সংগঠনটি।

মোজাম্মেল হক চৌধুরী এই সমিতি একটি অরাজনৈতিক, অলাভজনক স্বেচ্ছাসেবী ও যাত্রীকল্যাণমূলক সামাজিক সংগঠন হিসেবে বর্ণনা করেন। ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে তাদের অফিস বলে উল্লেখ করেন।

প্রতিষ্ঠানটি দুই ঈদে এবং বার্ষিক ভিত্তিতে সড়ক দুর্ঘটনার পরিসংখ্যান নিয়ে তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করতে দেখা যায়। গত রোজার ঈদের পর সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ওই প্রতিবেদন মনগড়া তথ্য বলে উল্লেখ করে সংগঠনটির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন। সমিতির মহাসচিবের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।

গত ১০ জুলাই জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে ওই সংগঠনের বিরদ্ধে সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, একটা ভুয়া জনকল্যাণ সমিতি বাংলাদেশে আছে, যাদের কোনো রেজিস্ট্রেশন নেই। সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে এরকম একটি লোক ওই সংগঠনের নেতৃত্ব দেয়। সময়ে সময়ে তাকে মতলবি মহল আশ্রয় প্রশ্রয় দেয়। আমি দেখি সমাজের অনেক বিশিষ্টজনও এই লোকটির সংবাদ সম্মেলনে এসে হাজির হয়।

মানবকণ্ঠ/এএ এম