ম্যাডামের ব্ল্যাক বেঙ্গল গোট…

ম্যাডাম জিয়ার “ ব্ল্যাক বেঙ্গল গোট” এর কথা মনে আছে ? বেশিদিন আগের কথা না, ১৩/১৪ বছর আগের কাহিনী। তখন ফেসবুক ছিলনা , টকশোবাজ অর্ধশিক্ষিত সুশীলদের আবির্ভাব তখন ঘটেনি। তখনও সবাই সুশিক্ষিত ছিল। ঐ সময় বেশ কিছুদিন মুখে মুখে একটা কথা প্রচলিত ছিল “ ম্যাডামের কালো ছাগল’’ টা কেউ দেখছেন ? কিছু বর্ণবাদী দুষ্ট প্রকৃতির মানুষ কৃশকায় মন্ত্রী, রাষ্ট্রদূতকেও এই নামে ডাকতো।

আসল কথা হলো ওই সময় মেঘনায় লঞ্চ ডুবে ৮৩ জন মারা গিয়েছিলো। একের পর এক লঞ্চ ডুবতো, শত শত লোক খুঁজে পাওয়া যেত না, লাশ নদীতে ভেসে উঠতো। ম্যাডামের ছেলের কোকো রহমান এর লঞ্চ “ কোকো-৩” ডুবেও অনেক লোকজন মারা গিয়েছিলো। সব মিডিয়ার লঞ্চ ডুবির কথা, মানুষ মারা যাবার কথা এসেছিলো, কিন্তু লঞ্চের নাম ও মালিকের নাম আসেনি।

ঐ সময় যে ৮৩ জন মারা গিয়েছিলেন তাদের সকলের পরিবারের দায়িত্ব ম্যাডাম জিয়া একাই নিয়েছিলেন সবাইকে একটি করে কালো ছাগল দিয়ে। তিনি বলেছিলেন, এই ছাগল থেকে প্রাপ্ত আয় দিয়ে তাদের সংসার। এই বক্তব্য শুনে নিহতদের পরিবারের দুইজন সদস্য পরে অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলো। যাই হোক মিডিয়ায় এই নিউজ না থাকলেও তখন মুখে মুখে ম্যাডামের কালো ছাগল বেশ বিখ্যাত ছিল।

এই কথাগুলো বলার কারণ হচ্ছে সড়ক দুর্ঘটনায় যে ২জন শিক্ষার্থী মারা গেলো, আর্থিকভাবে দুটি পরিবারই অসচ্ছল। তাদের ছোটভাই বোনদের পড়াশোনার খরচ চালানোর জন্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতি পরিবারকে ২০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র অনুদান হিসাবে দিয়েছেন। শেখ হাসিনার এই উদারতার প্রতি কটাক্ষ করে দেখলাম বিএনপির ফখরুল ও রিজভী সাহেবরা বলছেন যে প্রধানমন্ত্রী টাকা দিয়ে সন্তান হারানোর শোক ভুলানোর চেষ্টা করছেন। বলার সময় ওনারা আয়না দিয়ে নিজের চেহারা দেখেন না।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

মানবকণ্ঠ/এফএইচ