মেলায় ওয়ালটন পণ্য কিনলেই নগদ ছাড়, ক্যাশ ভাউচার ও ফ্রি পণ্য

মেলায় ওয়ালটন পণ্য কিনলেই নগদ ছাড়, ক্যাশ ভাউচার ও ফ্রি পণ্য

শেষমুহুর্তে উপচে পড়া ক্রেতা এবং বিকিকিনিতে জমে উঠেছে মেলা। তবে, পণ্য ক্রয়ে বাড়তি সুবিধা থাকায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে ক্রেতাদের ভিড় বেশি। মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে পণ্য ও মডেল ভেদে শতভাগ পর্যন্ত নগদ ছাড়, সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার, মোটরসাইকল, ফ্রিজ, টিভি, এয়ার কন্ডিশনার, ল্যাপটপসহ অসংখ্য ফ্রি পণ্য উপহার পাচ্ছেন ক্রেতারা।

মেলায় সরেজমিনে দেখা গেছে, ওয়ালটন ফ্রিজের ক্রেতারা মডেলভেদে ১০ থেকে ১২ শতাংশ পর্যন্ত মূল্য ছাড় পাচ্ছেন। ফ্রিজের পাশাপাশি এলইডি ও স্মার্ট টিভির ক্রেতারা পাচ্ছেন যথাক্রমে ১২ ও ১৫ শতাংশ নগদ ছাড়। এয়ার কন্ডিশনারের ক্রেতারাও পাচ্ছেন ১৫ শতাংশ ছাড়। জেনারেটর কেনার ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ ছাড় মিলছে। এছাড়াও, পণ্য ভেদে ৫ থেকে ১০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় পাচ্ছেন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের ক্রেতারা।

এসব সুবিধার পাশাপাশি দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এর আওতায় ওয়ালটন ফ্রিজ, টিভি, এসি, ল্যাপটপ, কম্পিউটার, ওয়াশিং মেশিন, জেনারেটর ও মাইক্রোওয়েব ওভেন কিনে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে মেলায় প্রতিদিনিই বিভিন্ন ধরণের আকর্ষণীয় উপহার পাচ্ছেন ক্রেতারা। এর মধ্যে রয়েছে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার, মোটরসাইকেল, এয়ার কন্ডিশনার, ল্যাপটপ, ফ্রিজ, এলইডি টিভি, ওভেনসহ অসংখ্য পণ্য ফ্রি।

মেলায় স্মার্টফোন প্রেমীদের শতভাগ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে ওয়ালটন। সূত্রমতে, ৯ হাজার ৯৯৯ টাকা দিয়ে ওয়ালটনের প্রিমো এইচ ৭এস মডেলের একটি স্মার্ট ফোন কিনে শতভাগ ছাড় পেয়েছেন মিরপুর থেকে আসা ক্রেতা মো. সাব্বির হোসেন মারুফ। এছাড়াও অসংখ্য ক্রেতা পেয়েছেন আকর্ষণীয় অঙ্কের ছাড়।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের সমন্বয়ক মোহাম্মদ মোস্তফাজ্জামান বলেন, মেলায় প্রায় ১’শ ধরণের ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল, হোম, কিচেন, আইসিটি ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে। এসব পণ্যের রয়েছে সহস্রাধিক মডেল। ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে এসে এক জায়গাতেই দরকারি সব প্রযুক্তি পণ্য পাওয়ায় ক্রেতারা বেশ আনন্দিত। পণ্য ও মডেল ভেদে নগদ ছাড়, ক্যাশ ভাউচার, ফ্রি পণ্য ইত্যাদি সুবিধা ক্রেতাদের আনন্দকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। তাই, মেলায় ক্রেতা আকর্ষণের শীর্ষে ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন। এবারের মেলায় সাড়ে সাত হাজার বর্গফুট আয়তনের দৃষ্টিনন্দন ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে ১০৩ মডেলের ফ্রস্ট ফ্রিজ, ২৩ মডেলের নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ, ১৬ মডেলের ফ্রিজার বা ডিপ ফ্রিজ ও ২ মডেলের বেভারেজ কুলার; ইনভার্টার ও আয়োনাইজার প্রযুক্তিসহ ১৪ মডেলের স্প্লিট এসি, ২ মডেলের ক্যাসেট ও সিলিং টাইপ এসি, ৭৮ মডেরের এলইডি ও ২৬ মডেলের স্মার্ট টিভি, ৮ মডেলের ওয়াশিং মেশিন; ১২ মডেলের মাইক্রোওয়েব ও ৩ মডেলের ইলেকট্রিক ওভেন।

মেলায় ওয়ালটন পণ্য কিনলেই নগদ ছাড়, ক্যাশ ভাউচার ও ফ্রি পণ্য

প্রযুক্তি প্রেমীদের জন্য রয়েছে প্রিলিউড, টেমারিন্ড, কেরেন্ডা ও ওয়াক্সজাম্বু এই চারটি সিরিজের ২৩ মডেলের ল্যাপটপ, ১৩ মডেলের ডেস্কটপ কম্পিউটার, ২ মডেলের মনিটর ২০ মডেলের স্মার্ট ফোন, ১৯ মডেলের ফিচার ফোন, বিভিন্ন ধরনের আইসিটি পণ্য যেমন: কি-বোর্ড, মাউস, পেনড্রাইভ ইত্যাদি।

প্যাভিলিয়নে দ্বিতীয় তলায় আছে প্যাসেঞ্জার লিফট ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস যেমন- কম্প্রেসর, প্লাস্টিক ও কেমিক্যাল কম্পোনেন্টস, ইলেকট্রিক কম্পোনেন্টস, মেকানিক্যাল কম্পোনেন্ট, হল্ট মেল্ট এ্যাডহেসিভ, মোল্ড, ডাই, এলজিপি, এলডিপি, ফাসেনার যেমন নাট, বোল্ট ও স্ক্রু, মাস্টারব্যাচ, অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল অ্যান্ড বোথ সাইড টেপ ইত্যাদি।

ওয়ালটন দেশেই ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস পণ্য উত্পাদন করায় স্থানীয় ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ শিল্পের জন্য অত্যন্ত সহায়ক হয়েছে। এসব পণ্যের মান যেমন অনেক উন্নত, তেমনি দামেও সাশ্রয়ী। এসব পণ্যের প্রয়োজন মিটাতে দেশীয় ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ শিল্পকে এখন আর আমদানির জন্য অপেক্ষা করতে হয়না। পাশাপামি, দামও তূলনামূলক অনেক কম। ফলে, শিল্পের উৎপাদনশীলতাও আগের চেয়ে বেড়েছে। নিজস্ব ও দেশীয় অন্যান্য ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ পণ্য উত্পাদন শিল্পের চাহিদা মিটিয়ে ওয়ালটনের তৈরি ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনসন পণ্য রফতানি হচ্ছে ইউরোপে।

মানবকণ্ঠ/এসএস