মাকে বাঁচাতে জবি শিক্ষার্থীর আবেদন

ক্যান্সার আক্রান্ত মাকে বাঁচাতে চায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষর্থী সাইফুর রহমান (ফাহাদ)। ২০১৪ সালে তার মায়ের (মাহমুদা বেগম) ব্রেস্ট ক্যান্সার ধরা পড়ে। তখন থেকেই চিকিৎসা চালিয়ে আসছিল ফাহাদের পরিবার। আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল হয়ে পড়ায় বর্তমানে ফাহাদের মায়ের চিকিৎসা বন্ধ হয়ে পড়েছে। মাকে বাঁচাতে সাহায্যের আহ্বান করছে জবি শিক্ষার্থী ফাহাদ।

ফাহাদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ৫ম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী অনেকেই ব্যক্তিগত ভাবে ফাহাদের মায়ের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষার্থীর সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে। কিন্তু চিকিৎসার ব্যয় বহনের পরিমাণ টাকা এখনো ব্যবস্থা হয়নি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (পিজি হাসপাতাল) ডা. মো. রাসেলের অধীনে ফাহাদের মা মাহমুদা বেগমের চিকিৎসা চালিয়ে আসছিলেন। অর্থের অভাবে মাহমুদা বেগমকে হাসপাতাল থেকে গ্রামের বাড়ি ভোলার চরফেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রোগীর অবস্থা বর্তমানে অবনতির দিকে থাকায় ডাক্তার রোগীকে বিদেশে চিকিৎসা করানোর পরামর্শ দিয়েছেন। এর জন্য প্রয়োজন অন্তত দশ (১০) লাখ টাকা। ইতোমধ্যেই অনেক টাকা খরচ করে নিঃস্ব হয়ে যাওয়া পরিবারের পক্ষে এত টাকা যোগাড় করা প্রায় অসম্ভব। তাই জবি শিক্ষার্থী ফাহাদ তার মাকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ করেছেন।

প্রয়োজনে— ০১৬৭০৭২২৮২৫ (সাইফুর রহমান ফাহাদ) ০১৮৩৮৬৫৭৯৫২ (আশিকুর রহমান সাদ)। বিকাশ নম্বর— ০১৬৭০৭২২৮২৫ রকেট নম্বর— ০১৬৭০৭২২৮২৫৭। এছাড়া ডাচ বাংলা ব্যাংক, যাত্রবাড়ী শাখা ঢাকা। অ্যাকাউন্ট নম্বর ৭০১৭৫১২৩১২২৯৭ সহায়তা পাঠাতে পারেন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.