মনোনয়ন প্রত্যাশায় গণসংযোগ করছেন শিল্পপতি হারুন-উর-রশিদ

মনোনয়ন প্রত্যাশায় গণসংযোগ করছেন শিল্পপতি হারুন-উর-রশিদ

আসন্ন একাদশ নির্বাচনে ঢাকা-৫ (যাত্রাবাড়ী-ডেমরা) আসনে আওয়ামী লীগে থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী এশিয়ান গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. হারুন-উর-রশিদ সিআইপি। তিনি দেশের সফল শিল্পোদ্যোক্তা, পরপর ৬ বার সর্বাধিক ভোটে নির্বাচিত এফবিসিসিআইয়ের সাবেক প্রভাবশালী পরিচালক। ইতিমধ্যে তার নির্বাচনী এলাকায় তিনি ব্যাপক গণসংযোগ শুরু করেছেন।

তিনি মানবকণ্ঠকে বলেন, আমি ডেমরা-যাত্রাবাড়ীর স্থায়ী বাসিন্দা হওয়ায় এখানকার জনমানুষের সঙ্গে হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণ জানান, এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে দীর্ঘদিন থেকে আলহাজ মো. হারুন-উর-রশিদ খেলাধুলা, শিক্ষা, সংস্কৃতি চর্চা, স্কুল-কলেজ, মসজিদ, মাদরাসা, মন্দির, এতিমখানা প্রতিষ্ঠা করাসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে নিয়মিত পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করে আসছেন। তিনি ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় সরকার কর্তৃক ১৬ বার সিআইপি ঘোষিত হন এবং বাণিজ্যক্ষেত্রে ১৪ বার রাষ্ট্রীয় পুরস্কার লাভ করেন।

স্থানীয় কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা জানান, তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী, শিক্ষিত ভদ্র মার্জিত ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক হিসেবে সর্ব মহলে তার গ্রহণযোগ্যতা ও জনপ্রিয়তা রয়েছে। এই জনপ্রিয়তার কারণে তিনি সহজেই নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে সক্ষম হবেন বলে দলের তৃণমূল পর্যায়ে নেতাকর্মীরা মনে করেন। একইসঙ্গে তিনি বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও এশিয়ান টেলিভিশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে নিয়োজিত আছেন। শিল্পপতি হারুন-উর-রশিদের সুদৃঢ় বিশ্বাস দলীয় নমিনেশন পেলে তিনি বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে অবহেলিত যাত্রাবাড়ী-ডেমরা জনগণের ভাগ্যোন্নয়নে জোরালো ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবেন। তিনি তার নির্বাচনী এলাকার জনসাধারণের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেন। হারুন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি আদর্শের নাম। বঙ্গবন্ধুকে যত বেশি জানা যাবে তত বেশি উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় কমিটেড হওয়া যাবে।

তিনি বলেন, এদেশের মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি এবং শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এলাকার উন্নয়নে আধুনিক ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলা হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলমান উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে হারুন এলাকাতে নৌকার পক্ষে গণসংযোগ ও নির্বাচনী প্রচার অব্যাহত রাখছেন। রাত-দিন দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের উন্নয়নের ফসল জনগণকে পৌঁছে দেয়ার জন্য তিনি অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

দেশের খ্যাতনামা এ ব্যবসায়ী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার চলমান সংগ্রামে দেশের সব সেক্টরে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা এগিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সমৃদ্ধ, বৈষম্যহীন ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে বাস্তবায়নের দ্বারপ্রান্তে। চলমান অগ্রগতির ধারাবাহিকতা না থাকলে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধু এমন একজন নেতা ছিলেন, যিনি সুনির্দিষ্টভাবে একটি ভূখণ্ডকে চিহ্নিত করতে পেরেছিলেন। তিনি একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রকাঠামো গড়ে তোলার জন্য সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছিলেন বলে জানিয়েছেন আলহাজ মো. হারুন-উর-রশিদ সিআইপি। তিনি বলেন, জাতির পিতার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন চিন্তার ফসল এই উপমহাদেশের একমাত্র ভাষা ভিত্তিক রাষ্ট্র হচ্ছে বাংলাদেশ।

মানবকণ্ঠ/এসএস