মধ্যরাতের সেই ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন জেসিয়া

জেসিয়া ইসলাম। শোবিজ সম্পর্কে যাদের জানাশোনা রয়েছে, তাদের সবার কাছেই এই নামটি পরিচিত। কেননা তিনি ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ বিজয়ী। সুন্দরী অন্বেষণের এই আয়োজন তাকে পরিচিতি দেয়। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি বরাবরই মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেয়েছেন।

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ার নিয়মিত চর্চার বিষয়ে পরিণত হন জেসিয়া। এর পেছনে মূল কারণ হচ্ছে ইউটিউবার সালমান মুক্তাদিরের সঙ্গে সম্পর্ক ও ঘনিষ্ঠতা। তাদের বিভিন্ন ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। তারা নিজেরাও বিভিন্ন আয়োজনে গিয়ে তাদের সম্পর্কের কথা স্বীকার করেছেন। তবে সম্প্রতি সেই সম্পর্কের অবনতি হয়েছে। যার একটি নমুনা কিছু দিন আগেই ভাইরাল হয় ফেসবুকে। সালমান মুক্তাদিরের বাসার সামনে গিয়ে মধ্যরাতে চিৎকার-চেঁচামেচি করেন জেসিয়া। সেটা আবার ভিডিও আকারে ছড়িয়ে পড়ে অনলাইনে। এরপরই চারদিকে সমালোচনা শুরু হয় তাদেরকে নিয়ে।

বিষয়টি নিয়ে জেসিয়া এতো দিন কিছুই বলেননি। এবার তিনি মুখ খুলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তা ও স্ট্যাটাস দিয়ে জানালেন নিজের বক্তব্য। জেসিয়া বলেছেন, ‘আমি জানি, সেদিন ওভার রিয়্যাক্ট করেছি। এটা করা ঠিক হয়নি। প্রত্যেকটা সম্পর্কে ঝগড়া কিংবা ভুল বোঝাবুঝি হয়ে থাকে। প্রত্যেকটা সম্পর্কে এটা সাধারণ একটা বিষয়। এটা ভাবার কিছু নেই যে, আমাদের (সালমান-জেসিয়া) জীবনের সেই সমস্য হচ্ছে। যাই হোক, যে সেদিন ভিডিওটা রেকর্ড করে ফেসবুকে ছেড়েছে, তাকে বিনীত অনুরোধ করব পরবর্তী সময়ে এমন কোনো ভিডিও যেন তিনি না ছাড়েন। আপনার জীবনে কিংবা পরিবারে যদি সমস্যা হয়, সেটা আপনি রেকর্ড করতে পারেন না।’

জেসিয়া আরও বলেন, ‘দয়া করে পুরো ঘটনা না জেনে ফেসবুকে কিছু শেয়ার করবেন না। সেদিন আমার রাগ নিয়ন্ত্রণ করার দরকার ছিল, যেটা আমি করিনি। শুরু থেকে আমি আমার ভালো ভাবমূর্তি ধরে রাখতে পারিনি। ভবিষ্যতে আমি ভালো কিছু করতে চাই, যেটা দেখে সবাই গর্ববোধ করবে।’

এদিকে ঘটনাটি নিয়ে সালমান মুক্তাদির এখনও পর্যন্ত কিছুই বলেননি। তার ফোনে একাধিকবার কল করলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ