ভ্যাট নিয়ে যত কথা

শাহনেওয়াজ :
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত চলতি অর্থবছরের বাজেট বত্তৃদ্ধতায় বলেছেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড যে রাজস্ব আহরণ করে এর মধ্যে ভ্যাট খাতের অবদান গুরুত্বপূর্ণ। তিনি আরো উল্লেখ করেছেন, ভ্যাট আমার কাছে শুরু থেকেই একটি অন্যতম কর বলে মনে হয়। এই ভ্যাট থেকে চলতি অর্থবছর ৯১ হাজার ৩৪৪ কোটি টাকা সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু নতুন ভ্যাট আইন কার্যকর না হওয়ার ফলে কিছুটা কম হবে অনেকেই ধারণা করছেন। তবে বর্তমান রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে যে টিম কাজ করছেন তাতে লক্ষ্যমাত্রা সংগ্রহ হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
ভ্যাটকে সর্বসাধারণের কাছে সহজবোধ্য করার জন্য ইতোমধ্যে ভ্যাট অনলাইন প্রকল্প কাজ করে যাচ্ছে। আর জাতীয় রাজস্ব বোর্ড তো ভ্যাটকে সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে প্রতি বছরের মতো আসছে ১০ ডিসেম্বর ‘ভ্যাট দিবস’ পালন করতে যাচ্ছে। মহান বিজয়ের মাসে এই ভ্যাট দিবস একটি নতুন মাত্রা সংযোজন হয়েছে। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের উন্নয়নের জন্য ভ্যাট দিবস একটি নতুন বার্তা বয়ে আনতে সহায়ক হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি স্বাধীন দেশের পতাকা দেশবাসী যেমন পেয়েছে, তেমনি সুযোগ পেয়েছে তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর। রাজস্ব হচ্ছে উন্নয়নের একটি অন্যতম অক্সিজেন। যা জাতীয় রাজস্ব বোর্ড মনে প্রাণে বিশ্বাস করে। আর সেই বিশ্বাস থেকেই রাজস্ব আহরণে রাজস্ব বোর্ড প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আয়কর মেলা করে এনবিআর যেমন সারাদেশে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে। আয়কর দাতাদের বিভিন্নভাবে উৎসাহ উদ্দীপনা যুগিয়ে যাচ্ছে। তেমনি ভ্যাটের ক্ষেত্রে এনবিআর চমক দেখাবেন বলে প্রত্যাশা করছে সংশ্লিষ্টরা। তবে চমক দেখানোর চেয়ে সেবার মনোভাব নিয়ে যে এনবিআর কাজ করছে তা আজ দিবালোকের মতো স্পষ্ট। শুধূ তাই নয়, সবার সামনে দৃশ্যমান। যা অনুভবে ব্যাপক নাড়া দিয়ে যাচ্ছে।
ভ্যাট আসলে কি?
এ কথা আর নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। ভ্যাট এখন কম বেশি সবার জানা। আর সেই জানাটি হচ্ছে, এটি পরোক্ষ কর। যা ভোক্তার কাছ থেকে আদায়যোগ্য। বাংলাদেশে ভোগকরা পণ্যের উপর কিংবা সেবার উপর ১৫ শতাংশ হারে এই কর আরোপ করা হয়। তাহলে ভ্যাট কিভাবে কাজ করে এই প্রসঙ্গটি এসে যায়। মূলত নিবন্ধিত করদাতা তার পণ্য বা সেবা সরবরাহের বিপরীতে নির্দিষ্ট হারে ভ্যাট পরিশোধ করেন ।