ভিন্নধর্মী উপস্থাপনায় এথেন্সে উদযাপিত হলো ৪র্থ উন্নয়ন মেলা

ভিন্নধর্মী উপস্থাপনায় এথেন্সে উদযাপিত হলো ৪র্থ উন্নয়ন মেলা

এথেন্সে নতুন প্রজন্মের প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থাপন করলো দেশের উন্নয়নে মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা। গ্রিসের এথেন্সস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের আয়োজনে ৫ অক্টোবর দূতাবাস প্রাঙ্গণে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশির অংশগ্রহণে আয়োজন করা হয় উন্নয়ন মেলা। এই মেলায় গ্রিস প্রবাসী নতুন প্রজন্মের বাংলাদেশি শিশু-কিশোররা দেশের উন্নয়নের বিভিন্ন আলোকচিত্র এবং ভিডিওচিত্র সহকারে দেশের উন্নয়নে বিভিন্ন দিক নিয়ে একটি ব্যাতিক্রমধর্মী উপস্থাপনা পরিবেশন করে। বর্ণিল সাজে সজ্জিত শিশু-কিশোররা দূতাবাস প্রাঙ্গণে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে উপস্থিত দর্শকদের কাছে বাংলাদেশের উন্নয়ন চিত্র প্রদর্শন করে।

উন্নয়ন মেলা উদ্বোধন করেন গ্রিসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন। উদ্বোধনকালে রাষ্ট্রদূত দেশের উন্নয়ন সম্পর্কে প্রবাসীদের অবহিত করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়ন অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান। উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে দিনব্যাপী দূতাবাস চত্বরে উন্নয়নের ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়। অতিথিদের উন্নয়নের ভিডিও সংবলিত সিডি উপহার দেয়া হয়।

 

এ দিন দূতাবাসের হলরুমসহ দূতাবাস চত্বর বাংলাদেশের উন্নয়নের চিত্র সম্বলিত বর্ণিল পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুনে সজ্জিত করা হয়। এতে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশন-২০২১ এবং ভিশন-২০৪১ সহ শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, আইসিটি, টেলিকমিউনিকেশন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হওয়া, নারীর ক্ষমতায়ন, এমডিজিতে বাংলাদেশের সাফল্য, দারিদ্র দূরীকরণের মতো আর্থ-সামাজিক উন্নয়নকে তুলে ধরা হয়। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি কূটনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্জন, বহির্বিশ্বে বলিষ্ঠ উপস্থিতিসহ গতিশীল পররাষ্ট্রনীতিও উপস্থাপন করা হয় এই উন্নয়ন মেলায়।

৪র্থ উন্নয়ন মেলা ২০১৮ উপলক্ষে দূতাবাস আয়োজন করে বিশেষ প্যানেল আলোচনা। বিপুল সংখ্যক দর্শকদের উপস্থিতিতে এই আলোচনা সঞ্চালনা করেন রাষ্ট্রদূত মো. জসীম উদ্দিন। আলোচনায় দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) ড. সৈয়দা ফারহানা নূর চৌধুরী, প্রথম সচিব জনাব সুজন দেবনাথ, বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের সভাপতি হাজী মো. আব্দুল কুদ্দুসসহ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি, নারী নেত্রীসহ রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতারা।

 ভিন্নধর্মী উপস্থাপনায় এথেন্সে উদযাপিত হলো ৪র্থ উন্নয়ন মেলা

আলোচনার শুরুত রাষ্ট্রদূত জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের এগিয়ে চলার একটি রূপরেখা তুলে ধরেন। এরপর রাষ্ট্রদূত বক্তাদের কাছে দেশের উন্নয়নসহ বিভিন্ন বিষয়ে তাদের নিজেদের বক্তব্য জানতে চান। বক্তারা তাদের নিজস্ব অভিজ্ঞতার আলোকে বাংলাদেশের উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন। তারা প্রতিটি ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং দেশের অগ্রযাত্রায় প্রবাসীদের কর্মযজ্ঞ অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্যানেল আলোচনার পর একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে স্থানীয় দোয়েল স্কুল এবং বাংলা-গ্রিক শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষার্থীরা। অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত এই উন্নয়ন মেলায় বিপুল সংখ্যক দর্শকের সমাগম ঘটে।

মানবকণ্ঠ/এসএ