‘ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের শনাক্ত করা হচ্ছে’

নয়াপল্টনে বিএনপির অফিসের সামনে পুলিশের গাড়ি পোড়ানোসহ নাশকতার ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের শনাক্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের কাউন্টার টেররিজমের প্রধান মনিরুল ইসলাম। শুক্রবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ডিবেট ফর ডেমোক্রসি অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তবে এ ঘটনায় নিরপরাধী কোনো ব্যক্তিকে হয়রানি করা হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ ঘটনায় নিরপরাধ কাউকে হয়রানি করা হবে না। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অযথা কাউকে গ্রেফতার করা হবে না। নির্বাচনের সময় ফৌজদারি অপরাধ না করলে এবং নির্বাচনী আচরণবিধি না ভাঙলে কাউকে গ্রেফতার করা হবে না।

মনিরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের সময় জঙ্গি তৎপরতার আশঙ্কা নেই। তবে জঙ্গিবাদ যেন মাথাচাড়া না দিতে পারে, এ জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক রয়েছে।

প্রসঙ্গত, বুধবার নয়া পল্টনে আসন্ন একাদশ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহের মধ্যেই সংঘর্ষে পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যানসহ দুটি গাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া হয়। এসময় পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নির্দিষ্ট দূরত্বে অবস্থান নিয়ে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ।

এ ঘটনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে আসামি করে তিনটি মামলা করেছে পুলিশ। এসব মামলায় অন্তত ৬৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এএম