বোরকা নিয়ে মন্তব্য করে তোপের মুখে জনসন

‘বোরকা নিয়ে মন্তব্য করায় জনসনকে দল থেকে বের করে দেয় উচিত’বোরকা নিয়ে মন্তব্য করার জন্য যুক্তরাজ্যের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনকে কনজারভেটিভ পার্টি থেকে বের করে দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন পার্টির মুসলিম ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা লর্ড শেখ। তিনি বলেন, শুধু প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাওয়া যথেষ্ট নয়। এসময় জনসনকে দল থেকে অপসারণের আহ্বানও জানান তিনি।

বোরকা পরা মুসলিম নারীদের ‘চিঠি ফেলার বাক্সের মতো লাগে’ এবং ওই নারীদের ‘ব্যাংক ডাকাতের’ সঙ্গে তুলনা করে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হন বরিস জনসন। ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার প্রথম নারী সদস্য পিয়ার ব্যারনেস ওয়ার্সি মনে করেন বরিস জনসনের এ মন্তব্যের ফলে যুক্তরাষ্ট্রে অপরাধের বৃদ্ধি হতে পারে।

অন্য দিকে সংস্কৃতি সচিব জেরেমি রাইট বলেছেন, ‘দৃঢ় কথোপকথন’ না করার কোনো কারণ নেই। আমরা আমাদের বন্ধুদের সঙ্গে পাপে বসে কোনো কথা বলছি না, আমরা জনগণের প্রতিনিধিত্ব করছি তাই আমাদের সাবধানতা অব্যাহত রাখার আরো দায়িত্ব রয়েছে।

কনজারভেটিভ পার্টির চেয়ারম্যান ব্র্যাণ্ডন লুইস বিবিসি রেডিও ৪’র নারী দিবসকে এই বিষয়ে বিতর্কের অধিকারী ছিলেন বলে মনে করেন। এ ভাষাটি ব্যবহার করার জন্য জনসনকে দুঃখ প্রকাশ করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।

জনসনের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র বলছে, ‘জটিল ইস্যুগুলোতে বিতর্ক বন্ধ করার ফাঁদে আমাদের পড়া উচিত নয়’। এসব বিষয়ে কথা বলা উচিত। কথা বলতে ব্যর্থ হলে প্রতিক্রিয়াশীল ও চরমপন্থীদের জন্য ক্ষেত্র তৈরি হবে।

মানবকণ্ঠ/ডিএইচ