বেশি চিনি খেলে ক্ষতি

বেশি চিনি খেলে ক্ষতি

নুন বেশি খেলে রক্তচাপ বাড়ে বলে জানা ছিল, কিন্তু চিনিও যে এই একই কাজের কাজি তা জানা গেল সম্প্রতি। জানা গেল, বেশি চিনি খাওয়ার সঙ্গে রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসারাইড বাড়ার সম্পর্ক আছে। আবার শরীরে যে ধরনের প্রদাহ হলে হৃৎপিণ্ডের রক্তনালির মধ্যে চর্বি জমে ইস্কিমিক হৃদরোগের সূত্রপাত হয়, তা ঘটাতেও অনুঘটকের কাজ করে চিনি। সবে মিলে, বেশি চিনি খেলে আপনার ওজন যতই স্বাভাবিক থাকুক না কেন হৃদরোগ হওয়ার আশঙ্কা খুব প্রবল, যদিও কীভাবে ঠিক ঘটনাটা ঘটে সে ব্যাপারে বিজ্ঞানীরা এখনো নিঃসন্দেহ নন।

শুধু যে খাবারে চিনি মেশালে বিপদ হয় এমন নয়, প্রক্রিয়াজাত খাবারও সমান বিপজ্জনক। কারণ তাতে অ্যাডেড সুগার থাকে, তা সে ব্রেকফাস্ট সিরিয়াল হোক কি পাউরুটি, প্যাকেটের ফলের রস হোক কি বিয়ার, সস, কেচাপ, কুকিস, ক্যান্ডি, মেয়োনিজ ও অন্যান্য সালাদ ড্রেসিং, ঠাণ্ডা পানীয়।

জানা গেছে, একটি ১২ আউন্সের ঠাণ্ডা পানীয়তে থাকে ৯ চামচের মতো চিনি। একটা বড় সিনামন রোলে থাকে ১৩ চামচ। এক স্কুপ চকোলেট আইসক্রিমে ৫ চামচ। এর সঙ্গে চা-কফিতে বা রান্নায় চিনি মেশালে তো হয়েই গেল। অতিরিক্ত চিনি খাওয়ার ফলে হৃদরোগের পাশাপাশি, ওবেসিটি, দাঁতের ক্ষয়, ডায়াবেটিস, এমনকি কিছু কিছু ক্যান্সারের প্রকোপও বাড়ে।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশ অনুযায়ী, পুরুষদের দিনে ৯ চামচ ও নারীদের ৬ চামচের বেশি চিনি খাওয়া উচিত নয়।
* বেশি নুন খেলে যা ক্ষতি, বেশি চিনি খেলে ক্ষতি তার চেয়ে ঢের বেশি?
* সিগারেটের চেয়েও চিনি বেশি ক্ষতিকর।
* চিনির আসক্তি যত তাড়াতাড়ি কাটিয়ে ওঠা যায়, ততই মঙ্গল।
* প্রাকৃতিক চিনি তুলনায় ভালো হলেও মাত্রা না রাখতে পারলে তাতেও বিপদ। আনন্দবাজার।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.