বিশ্বভারতীর সমাবর্তন মঞ্চে শেখ হাসিনা-মোদি-মমতা

বিশ্বভারতীর সমাবর্তন মঞ্চে শেখ হাসিনা-মোদি-মমতা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের পশ্চিমবঙ্গে শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে যোগ দিয়েছেন। স্থানীয় সময় ১১টার কিছু পরে সমাবর্তন মঞ্চে ওঠেন তিনি। তার সঙ্গে সেখানে রয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সবুজকলি সেন ঐতিহ্য মেনে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করে নেন। সেখানে ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও। একই মঞ্চে তিন প্রভাবশালী নেতার উপস্থিতিতে সমবেত সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে শুরু হয় মূল আনুষ্ঠানিকতা। আলোচিত এই সমাবর্তনে বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবীন্দ্র স্মৃতিবিজড়িত শান্তিনিকেতনে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করার পর একান্ত বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকের কথাও রয়েছে।

এছাড়া শুক্রবার বিকেলে শেখ হাসিনা জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন করবেন। এরপর সন্ধ্যায় কলকাতার ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। রাতে প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের গভর্নর কর্তৃক আয়োজিত নৈশভোজে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

এর আগে, হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ২০ মিনিটে কলকাতার নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

কলকাতা নেতাজি সুভাষচন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান পশ্চিমবঙ্গের পৌর ও নগর উন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী।

বিমানবন্দর থেকে সরাসরি শান্তি নিকেতনে যান তিনি। সেখানে বিশ্বভারতীর উপাচার্য সবুজকলি সেন প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান এবং পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র ভবনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আগামীকাল আসানসোলে কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ডি লিট ডিগ্রি গ্রহণ করবেন তিনি। সেখান থেকে বিশেষ বিমানে কলকতা নেতাজি সুভাষচন্দ্র বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন। এরপর বিকেলে নেতাজি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। এরপর পশ্চিমবঙ্গের সংসদ সদস্যরা সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে।

শনিবার রাতে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মানবকণ্ঠ/এসএস