বিকেল পর্দা উঠছে বাণিজ্যমেলার

বিকেল পর্দা উঠছে বাণিজ্যমেলার

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ২৪তম আসরের পর্দা উঠছে আজ। বিকেল ৩টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মেলার উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ। মাসব্যাপী এ মেলা রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশের মাঠে আজ শুরু হয়ে চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত। গতকাল সকালে বাণিজ্যমেলা প্রাঙ্গণে এক সংবাদ সম্মলনে এসব তথ্য জানান বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সরকারের ডিজিটাল সেবা পাওয়ার জন্য এবারই প্রথমবারের মতো নিজস্ব প্লাটফর্মের মাধ্যমে (ওয়েব ও মোবাইল আ্যাাপস) মেলার প্রবেশ টিকিট অনলাইনে বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর ফলে বাণিজ্যমেলায় আগ্রহী আগত দর্শকরা যে কোনো স্থান থেকে ওয়েব ও মোবইল অ্যাপস-এর মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং, ইন্টারনেট ব্যাংকিং ও ডেবিট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে মেলার প্রবেশ টিকিট কিনতে পারবেন। ওয়েব ও মোবাইল আপসের মাধ্যমে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের নাম, নম্বর, অবস্থান ও ডিরেকশন জানতে পারবেন।

রাজধানীর পূর্বাচলে স্থায়ী বাণিজ্যমেলা মাঠের উন্নয়ন প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে ইপিবির কর্মকর্তারা বলেন, কাজ অনেক দূর এগিয়েছে। ২০২১ সালের মেলা সেখানে হতে পারে বলে তারা জানান।

সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। আমি দায়িত্ব নিয়েছি একদিন হলো। আমাদের সম্ভাবনাময় দুটি খাত হলো গার্মেন্টস আর ওষুধ। এ দুটি খাতে আমাদের আরো উন্নত করার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। দেশে আরো বিনিয়োগ বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা আরো জানান, দর্শনার্থীদের জন্য এবারেই প্রথম বাণিজ্যমেলায় পর্যাপ্ত সবুজ চত্বর, বিশ্রামের জন্য আরামদায়ক ও শোভন বেঞ্চ স্থাপন, হকার ও ভিক্ষুক মুক্ত মেলা প্রাঙ্গণের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। প্রতিদিন মেলায় দর্শনার্থীদের বিনোদন দিতে দেশীয় কৃষ্টি, সংস্কৃতি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সম্পর্কে উদ্বুদ্ধ করতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হবে। এ ছাড়াও মেলা প্রাঙ্গণে ২টি মা ও শিশু কেন্দ্র ও ২টি শিশুপার্ক থাকছে।

২৪তম আসরের বিভিন্ন ক্যাটাগরির মোট প্যাভিলিয়ন থাকছে ১১০টি। মিনি প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৮৩টি এবং বিভিন্ন ক্যাটাগরির মোট স্টল (রেস্তোরাঁসহ) থাকছে ৪১২টি। ২২টি দেশের মোট ৫২টি প্রতিষ্ঠান এ মেলায় অংশ নিচ্ছে। বাংলাদেশসহ থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মামলদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়শিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, সিংগাপুর, মরিশাস, দক্ষিণ কোরিয়া, সাউথ আফ্রিকা, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।

মেলার প্রবেশ মূল্য নির্ধারিত করা হয়েছে প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। তবে অনলাইনে টিকিট সংগ্রহ করলে ২ টাকা বাড়তি পরিশোধ করতে হবে সার্ভিস ফি হিসেবে। মেলায় আগত দর্শণার্থীদের পকেটমারসহ দুর্বৃত্তদের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য মেলা প্রাঙ্গণে পর্যপ্ত সংখ্যক আনসার, ভিডিপি, পুলিশ, আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, বিজিবি ও র‌্যাব নিয়োজিত থাকবে। মেলা প্রাঙ্গণের চারপাশে থাকবে সিসিটিভি।

মানবকণ্ঠ/এসএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.