হুমকি যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি'র

‘বিএনপি সন্ত্রাসী নয়’ বিবৃতি না দিলে কানাডা হাই কমিশন ঘেরাও

বিএনপিকে কানাডা প্রশাসন সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করেছে। অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারসহ কানাডা সরকারকে ক্ষমা প্রার্থনার দাবি জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি। অন্যথায় কানাডা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন ও নিউ ইয়র্কে অবস্থিত কানাডা হাইকমিশন ঘেরাওয়ের হুমকি দেয় তারা।

১৬ জুলাই রোববার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি ও তারেক পরিষদ আন্তর্জাতিক কমিটির এক যৌথ সভা থেকে বিএনপি নেতা আকতার হোসেন বাদল বলেন, বিএনপি সর্ববৃহৎ গণতান্ত্রিক দলগুলোর একটি এবং কোন ধরনের সন্ত্রাসকে প্রশ্রয় দেয় না- এই সত্য উচ্চারণের পাশাপাশি বিএনপি যে কোনভাবেই সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, তা স্বীকার করতে হবে কানাডা প্রশাসনকে। অন্যথায় যুক্তরাষ্ট্রে কানাডা হাই কমিশন এবং জাতিসংঘে কানাডা মিশন ঘেরাওয়ের কর্মসূচি দেয়া হবে।’

বাদল উল্লেখ করেন, ‘ইতিপূর্বে মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও বিএনপিকে তৃতীয় স্তরের সন্ত্রাসী সংগঠনের তালিকাভুক্ত করা হয়। তবে যুক্তরাষ্ট্র বিচার বিভাগ, বিশেষ করে ইমিগ্রেশন জজরা এই নির্দেশকে সঠিক নয় বলে রুলিং দিয়েছেন।’ এখন বিএনপির কর্মী হিসেবে যারাই এসাইলাম চাচ্ছেন, ইমিগ্রেশন আদালত তা মঞ্জুর করছেন বলেও বাদল সমাবেশকে অবহিত করেন। অথচ মহল বিশেষের মদদে বৃহৎ একটি গণতান্ত্রিক দল-বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠনের অপবাদ দেয়ায় প্রবাসীরা ক্ষুব্ধ বলেও মন্তব্য করেন বাদল।

বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে তারেক পরিষদ ও বিএনপির এই নেতা আরো উল্লেখ করেন, মার্কিন কংগ্রেসে পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির শীর্ষস্থানীয়দের সাথে সম্প্রতি কথা হয়েছে। তারা বাংলাদেশে সকল দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দেখতে আগ্রহী। বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা সুসংহত হলেই সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করা সহজ হবে বলে তারা মনে করছেন।

যুক্তরাজ্য সফররত বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্বাস্থ্য কামনায় এ সময় সকলে বিশেষ মোনাজাতে মিলিত হন। একইসাথে প্রত্যাশা করেন যে, সামনের জাতীয় নির্বাচনে বিএনপিসহ সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণকে নিশ্চিত করতে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। আকতার হোসেন বাদল বলেন, তাহলে আমি নিজেও চাঁদপুর-৫ আসন থেকে বিএনপির নমিনেশনে নির্বাচনের জন্যে বাংলাদেশে চলে যাবো।

জ্যাকসন হাইটসে কাবাব অ্যান্ড কিং রেস্টুরেন্টে এ সভা পরিচালনা করেন তারেক পরিষদ আন্তর্জাতিক কমিটির মহাসচিব জসীমউদ্দিন। নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির নেতা কাজী মো. আসাদউল্লাহ, হুমায়ূন কবীর, সাইফুল ইসলাম অপু, আনিসুর রহমান, খন্দকার সাইফুল ইসলাম, মজিবর রহমান, শরীফ চৌধুরী পাপ্পু প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/আরএ