বিএনপি মানসিক ও রাজনৈতিক প্রতিবন্ধী দল : হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি বিভিন্ন সময় সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও অসংলগ্ন কথা বলে জনগণের কাছে ‘মানসিক ও রাজনৈতিক প্রতিবন্ধী দল’ হিসেবে প্রমাণ করেছে।
শুক্রবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা করেন।
হানিফ বলেন, বিএনপি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকাকালীন ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে। এখন বর্তমান সরকারের উন্নয়নে ঈর্ষান্বিত হয়ে মিথ্যাচার করছে। সরকারের উন্নয়ন পদক্ষেপ নিয়ে অহেতুক মিথ্যাচার করে জনমনে বিভ্রান্তি ছাড়াচ্ছে। এসব করে দলটি মানসিক প্রতিবন্ধী হিসেবে জনগণের কাছে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। রাজনৈতিক বিকারগ্রস্ত ও দেউলিয়া হয়ে গেছে।
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে কী নেবে না সেটা বিএনপির বিষয় বলে মন্তব্য করে হানিফ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে। আমরা আশা করি, বিএনপি ওই নির্বাচনে এসে জনগণের কাছে নিজেদের আস্থার পরীক্ষা দেবে। তবে, নির্বাচনে অংশ নেয়া বিএনপির গণতান্ত্রিক অধিকার। না নেয়াও তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার।
এ সময় দায়িত্বশীল দল হিসেবে বিএনপিকে সরকারের পাশে থেকে দুর্গত মানুষকে সহায়তা করার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের এ নেতা।
হাওর পরিস্থিতি সম্পর্কে হানিফ বলেন, হাওরে বাঁধ নির্মাণে কারও গাফলতি থাকলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আহমেদ হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, সামছুন্নাহার চাঁপা, রোকেয়া সুলতানা, রেমন আরেং, এসএম কামাল হোসেন, গোলাম রব্বানী চিনু, ফরিদুন্নাহার লাইলী, ড. আবদুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএস