বিএনপি নেতা রফিকুলকে ৩ বছরের কারাদণ্ড

দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) সম্পদের হিসাব দাখিল না করার মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম মিয়াকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. শেখ গোলাম মাহাবুব এই আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় রফিকুল ইসলাম আদালতে হাজির ছিলেন না। আদালত রফিকুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

মামলার বিবরণে দেখা যায়, ২০০১ সালে তৎকালীন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে সম্পদের হিসাব দাখিল করার জন্য নোটিশ দেয়। কিন্তু তিনি সম্পদের হিসাব দাখিল না করায় ২০০৪ সালে ১৫ জানুয়ারি তৎকালীন দুদকের ব্যুরো লিয়াকত হোসেন এ মামলা দায়ের করেন। পরে তদন্ত শেষে একই বছর ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। আদালত ওই অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে গত বছরের ১৪ নভেম্বর রফিকুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে ছয়জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করা হয়। আদালত আজ রায় ঘোষণা করলেন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ