বিএনপি-জামায়াত সাংবাদিকদের মর্যাদা কেড়ে নিয়েছিলো: তারানা

বিএনপি-জামায়াত সাংবাদিকদের মর্যাদা কেড়ে নিয়েছিলো: তারানা

সাংবাদিকদের আমরা শ্রদ্ধা-ভক্তি ও সম্মান করি। কিন্তু বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের সময় সাংবাদিকদের শ্রম আইনে সাধারণ শ্রমিক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে। এর মধ্য দিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের মর্যাদা কেড়ে নেয়া হয়েছিলো। এটা খুব অসম্মানজনক। আপনাদের ক্ষোভ, লজ্জা আর দুঃখে আমরা সহযাত্রী ও সহমর্মিত। বললেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট তারানা হালিম।

বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে অসুস্থ, অস্বচ্ছল ও দুর্ঘটনাজনিত আহত সাংবাদিক ও নিহত সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদের মাঝে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তারানা হালিম বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় সাংবাদিকদের বহু হামলা ও নির্যাতন করা হয়। তাদের সময়ে প্রখ্যাত সাংবাদিক শাহরিয়ার কবিরসহ ১৪ জন সাংবাদিককে ছাটাই করা হয়। বাসসের সাংবাদিক এনামুল হক চৌধুরী, মুনতাসির মামুন গ্রেফতার ও নির্যাতনের শিকার হন। এছাড়া ২০০৬ সালে ৩০ জন সাংবাদিককে খেলার মাঠে পুলিশ দিয়ে হামলা চালানো হয়।

সাংবাদিকদের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রীর নেয়া নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে তারানা হালিম বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশে এখন অবাধ তথ্য প্রবাহ চলছে। শেখ হাসিনার সরকারের সময়ে বাংলাদেশে দৈনিক পত্রিকা প্রকাশিত হয় ১ হাজার ২২০টি। টিভি চ্যানেল সম্প্রচার হয় ৩০টি। রেডিও সম্প্রচার হচ্ছে ২২টি। প্রত্যেকেই অবাধ ও স্বাধীন ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি রহমত আলী এমপি প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএস