বিএনপির অনেক নেতাই চায় খালেদা জিয়ার শাস্তি হোক: হাছান

ড. হাছান মাহমুদ

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির অনেক নেতাই সরকারের সঙ্গে তলে তলে যোগাযোগ করছেন। কারণ তারা চায় বেগম জিয়ার শাস্তি হোক। আর খালেদা জিয়ার শাস্তি হলেই তারা খালেদাকে ‘টাটা-বাই বাই’ দিয়ে অন্য কোনো দল গঠন করবে, নয়তো সরকারের সঙ্গে আসতে চাইবে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উদ্যোগে ‘খালেদা জিয়া ও তার পরিবারের বিদেশে পাচারকৃত অর্থ-সম্পদ ফেরত আনার দাবিতে’ মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

‘আলী বাবা চল্লিশ চোরের থেকেও বড় চোর খালেদা জিয়ার পরিবার’ মন্তব্য করে হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়ার ‘অবৈধ’ অর্থ বিদেশ থেকে ফেরত আনা হোক। এর আগেও তারেক-কোকোর অবৈধ অর্থ দেশে ফেরত আনা হয়েছে। আমি দাবি জানাবো সরকার যেন সেই প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়ার অবৈধ অর্থ দেশে ফিরিয়ে আনে এবং আইন অনুযায়ী
খালেদা জিয়ার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের সমালোচনা করে তিনিবলেন, খালেদা জিয়া যখন দুর্নীতিতে বিদেশে ধরা পরেছে তখন আপনারা চুপসে গেছেন। আপনাদের মুখে কোনো কথা নেই। এটি যদি আজ দেশের কোনো পত্রিকা প্রকাশ করত তাহলে বলতেন এটা সরকারের ষড়যন্ত্র। এখন আর কিছু বলতে পারছেন না।

বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক।

শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, খালেদা জিয়া ও তার পরিবার সৌদিআরবে ১২ হাজার কোটি ডলার পাচার করেছে বলে বিদেশের বিভিন্ন চ্যানেলে ফলাও করে প্রচার করা হয় এবং সৌদি আরবের রাজপরিবারের ২ সদস্য স্বীকারোক্তি দিয়ে বলেছেন তারেক-খালেদার পাচারকৃত টাকা সেখানে ব্যবসায়ীক কাজে বিনিয়োগ করা হয়েছে। যা গার্ডিয়ান ও আল জাজিরাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশ হয়েছে। খালেদা ও তারেকের বিরুদ্ধে সরকারকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি ব্যারিস্টার জাকির আহম্মদ, আওয়ামী লীগ নেতা এম.এ করিম, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলুল হক, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী তুহিন, কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নাসির উদ্দিন শিশির, হোমনা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমজাদ হোসেন প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এএইচএইচ/এসএস