বাংলাদেশে এলো ‘ফ্ল্যাশট্যাগ’

বর্তমান সময়ে পৃথিবীকে হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে যে প্রযুক্তি তার নাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা সোশ্যাল মিডিয়া। এই সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের পুরোনো সেই দিন গুলোর কথা ভুলিয়ে দিয়েছে। কোন এককালে আমরা চাইলেই আমাদের প্রিয় জনের খোঁজ নিতে পারতাম না। আজ মানুষ সেই দিন গুলোকে মনেও করে না খুব একটা। কারণ নিত্য নতুন প্রযুক্তি আমাদের সব কিছু কেই আপন করে দিয়েছে। আর সেই সূত্র ধরেই বাংলাদেশে এলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নতুন মোবাইল অ্যাপস ‘ফ্ল্যাশট্যাগ’।

এই মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে আপনি চাইলেই আপনার সাথে সংযুক্ত সকল বন্ধুদের মতামত নিতে পারবেন অতি সহজেই। নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের দাবী নিত্য প্রয়োজনীয় নানান কাজে মানুষের কোন কিছু বা জিনিষ নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগলে তার জন্য ফ্ল্যাশট্যাগ কাজ করবে একটি অন্যতম মাধ্যম হিসেবে। এখানে ‘ফ্ল্যাশট্যাগ’ ব্যবহারকারী তার নিজের পছন্দের তালিকায় থাকা এক বা একাধিক ছবি প্রকাশ করে সে তার বন্ধুদের মতামত নিতে পারবে অতি সহজেই।

সম্প্রতি ঢাকার একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে হয়ে গেল নতুন এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বাংলাদেশের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী জনাব হাসানুল হক ইনু।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ফ্ল্যাশট্যাগ’র প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও জনাব বিনয় চেরিয়ান, বিএমজে প্রোডাকশন হাউজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড.জাকির হোসাইন, হোয়াইট ব্যালেন্স এর কর্ণধার জনাব এস এম সালাহ উদ্দীন, আর এফ এল প্লাস্টিক এর হেড অব মার্কেটিং জনাব আরাফাতুর রহমান আরাফাত, ভারটেক্স গ্রুপের জি এম মার্কেটিং আহম্মেদ হাসান।

এখানে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ‘ফ্ল্যাশট্যাগ’ অ্যাপস এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এ সময়ের চলচ্চিত্র ও টিভি মিডিয়ার জনপ্রিয় অনেক তারকারা। মডেল ও উপস্থাপক আর জে নিরবের উপস্থাপনায় এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক, চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী, মডেল ও চিত্রনায়ক নীরব হোসাইন, মডেল অভিনেতা সজল, অভিনেতা তানভীর, মডেল ও অভিনেত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া, অভিনেত্রী নাইরুজ সিফাত, চিত্রনায়িকা রাহা তানহা খান, চিত্রনায়িকা অধরা খান, কন্ঠশিল্পী বালাম, কন্ঠশিল্পী প্রতীক হাসান, কন্ঠশিল্পী তানজীব সারোয়ার, কন্ঠশিল্পী প্রত্যয় খানসহ আরো অনেক তারকারা।

‘ফ্ল্যাশট্যাগ’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাননীয় তথ্যমন্ত্রী জনাব হাসানুল হক ইনু বলেন- ‘কিছু দিন পূর্বেই আমাদের এই যুগকে বর্তমান আধুনিক যুগ বলা হত কিন্তু এখন আমরা বর্তমান আধুনিক যুগ বলি না। আমরা এখন বলি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির যুগ। কারণ তথ্য প্রযুক্তির উন্নতির সাথে সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রেও অনেক বেশি সাফল্য অর্জন হয়েছে। একটা বিশেষ সময় ছিল যখন মানুষ পায়ে হেটে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাতায়াত করতো। তারপর ধীরে ধীরে বিজ্ঞানের উৎকর্ষ শক্তির ফলে সেই সমস্যার সমাধান হয়েছে কিন্তু তথ্য আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে খুব বেশি উন্নয়ন সাধিত হয় নি। তবে আধুনিক যুগে ইন্টারনেট আবিষ্কারের পর থেকে শুরু হয়েছে আধুনিক তথ্য ও যোগাযোগ এর বিশেষ একটি মাধ্যম,যার মাধ্যমে যোগাযোগ কে করেছে সহজ থেকে আরও সহজ। যোগাযোগের এমন সহজ মাধ্যমের ফলে পুরো বিশ্বটা যেন এক হয়ে গেছে। ফ্ল্যাশট্যাগ নামক এই নতুন মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে আপনারা সহজেই আপনার বন্ধু বান্ধব সহ অনেকের মতামত নিতে পারবেন খুব সহজেই। এক্ষেত্রে এ নতুন মোবাইল অ্যাপসটি আমাদের দেশে যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন এক মাত্রা যোগ করবে বলে আমার বিশ্বাস।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে কেক কেটে ও শুভেচ্ছা দিয়ে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন ফ্ল্যাশট্যাগ এর সিইও বিনয় চেরীয়ান।

বিনামূল্যে ফ্ল্যাশট্যাগ এর মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড লিংক-
প্লে-ষ্টোর লিঙ্ক: https://play.google.com/store/apps/details?id=com.flashtag&hl=en
আই টিউন অ্যাপস স্টোর লিঙ্ক: https://itunes.apple.com/in/app/flashtag-get-quick-opinions/id1109954683?mt=8

মানবকণ্ঠ/আরএ