বসবাসের আকর্ষণীয় জায়গা

বিশ্বের অনেক দেশ শুধু প্রশাসনিক কাজের জন্য রাজধানীকে বেছে নিলেও বাংলাদেশের ক্ষেত্রে বিষয়টি মোটেও তেমন নয়। তবে সরকারি কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি সবই যেন রাজধানী ঢাকাকেন্দ্রিক। এজন্য ঢাকা হয়ে উঠেছে বিশ্বের অন্যতম জনবহুল নগর। ১০৪ বর্গমাইল এলাকা নিয়ে ঢাকার অবস্থান। এখানে ২ কোটির বেশি মানুষ বসবাস করে এবং প্রতিদিন সংখ্যাটি বাড়ছে। জনসংখ্যার ঘনত্ব বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নাগরিক সুবিধাসংশ্লিষ্ট চাহিদাও বাড়ছে। তবে বসবাসের জন্য আদর্শ জায়গা হতে হলে ভালো মানের বাসা, মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, বিনোদনমূলক জায়গার উপস্থিতি, সুন্দর প্রতিবেশ খুবই জরুরি।

ধানমণ্ডি : এটি ঢাকা সিটির মধ্যে সবচেয়ে অভিজাত আবাসিক এলাকা। ১৯৫০ সালে এলাকাটি গড়ে ওঠে।
শুরু থেকেই এটি অভিজাত আবাসিক এলাকা হিসেবে সমাদৃত। এলাকাটিতে রয়েছে ভালো মানের হাসপাতাল, শপিংমল, বিদ্যালয়, ব্যাংক, অফিস এবং বিশ্ববিদ্যালয়।
আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত সহজলভ্য অ্যাপার্টমেন্ট, ভালো রাস্তা, নগরের অন্যান্য এলাকার সঙ্গে সহজ যোগাযোগ, প্রশান্তির জন্য ধানমণ্ডি মনোরম লেক ইত্যাদি।
এক হাজার থেকে এক হাজার একশত বর্গফুট ফ্ল্যাটের জন্য এখানে গড়ে মাসিক বাড়ি ভাড়া ২৫ হাজার টাকা এবং বছরে ১৪% বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি হয়।
বনানী : রাজধানী ঢাকার অন্যতম জমজমাট এলাকা বনানী। ভোজনপ্রিয় মানুষদের পছন্দের কেন্দ্রস্থল হলো বনানী।
বাড়ি অথবা অ্যাপার্টমেন্ট নির্বাচনের জন্য বনানী সত্যিই আদর্শ। এখানে গড়ে মাসিক বাড়ি ভাড়া ২৫ হাজার টাকা।
মিরপুর : নি¤œ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের পছন্দের তালিকায় রয়েছে মিরপুর। মিরপুরের সৌন্দর্য হলো, এখানে প্রয়োজনমতো সবই পাওয়া যায়। প্রশস্ত রাস্তা থেকে শুরু করে সস্তা বাজার, বিখ্যাত রেস্টুরেন্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সবই আছে এখানে।
তবে অভিজাত এলাকা হিসেবে মিরপুর ডিওএইচএস গড়ে উঠছে। অনেক মানুষের পরবর্তী ঠিকানা হিসেবে পছন্দের জায়গা হলো মিরপুর। এখানে গড়ে মাসিক বাড়ি ভাড়া ১৫ হাজার টাকা।
উত্তরা : উত্তরা হলো ভৌগোলিকভাবে দক্ষিণ ঢাকা থেকে উঁচু স্থানে। ঢাকার যানজট এবং দূষণ থেকে মুক্ত এমন জায়গায় এটি অবস্থিত এবং ২০০০ সাল পর্যন্ত এটি শান্ত প্রকৃতির স্থান হিসেবেই চিহ্নিত ছিল।
সম্প্রতি মানুষের নগরমুখিতার কারণে এটিও জনবহুল হয়ে উঠছে। শহরতলি হিসেবে ভালো শপিং কমপ্লেক্স, দোকান, বিদ্যালয়, মহাবিদ্যালয়ের বিস্তার ঘটেছে। এখানে গড়ে মাসিক বাড়ি ভাড়া ১৭ হাজার টাকা।
আজিমপুর : আজিমপুরে অনেকের কাছে বসবাসের জন্য আকর্ষণীয় হলেও এটি একেবারে নিরিবিলি এলাকা নয়। শব্দ ও মাত্রা অপেক্ষাকৃত বেশি। আজিমপুর নতুন এবং পুরান ঢাকার সংযোগসস্থল। এখানে গড়ে মাসিক বাড়ি ভাড়া ১৬ হাজার টাকা।
বনশ্রী : বনশ্রীও আবাসিক এলাকা হিসেবে অনেকের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এলাকাটি ভালো পরিকল্পনার মাধ্যমে গড়ে উঠছে।
হাতিরঝিলের সঙ্গে প্রধান ব্যবসায়ী ও বাণিজ্যিক সংযোগ রাস্তা রয়েছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, এখানে খরচ কম।
জরিপে পাওয়া গেছে, নতুন বিবাহিতদের জনপ্রিয় গন্তব্যস্থল হলো এটি। এখানে মাসিক বাড়ি ভাড়া ১৩ হাজার টাকা। তথ্য ও ছবি : ইন্টারনেট – নগরে নাগরিক ডেস্ক