বকর ভাইয়ের কথাগুলো প্রতিটি মুহুর্তেই ভাস্বর হয়ে আছে

আমাদের বকর ভাইআমি একজন খুদ্র সংবাদকর্মী। পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালী উপজেলায় দৈনিক সংবাদে কাজ করাকালীন সময়ের কথা। এইতো কয়েক মাস আগে ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে ভাইয়ের সাথে দেখা হয়েছিলো। আমি ঢাকায় কাউকে চিনতাম না। সাংবাদিকতা করি তাই প্রেসক্লাবটা দেখেতে গেলাম।

ঠিক তখনই ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সামনে বকর ভাইয়াকে দেখলাম তবে চিনতাম না তিনি কে। আমাদের এলাকার এক ভাই তাকে দেখে সালাম দিলো, আমিও সালাম দিয়ে হাত বাড়িয়ে দিলাম। ঠিক তখনই আমাকে জিজ্ঞাসা করলো আপনি কি করেন। আমি আমার সম্পর্কে সবকিছু খুলে বললাম যে, আমি সংবাদকর্মী হিসাবে উপজেলায় কাজ করছি। তবে ঢাকায় আসছি পার্মানেন্ট থাকার জন্য, কিন্তু অনার্স শেষে করেও সাংবাদিকতা ছাড়া অন্য চাকরি করার ইচ্ছা নেই। তাই ভোরের ডাকে সাব-এডিটর পদে ৬ হাজার টাকা বেতনে কাজ করছি।

ভাইয়া খুবই খুশি হয়ে বললেন, শিখতে থাকো একদিন বড় হবে তোমরাই আগামীর ভবিষ্যৎ এবং ০১৭১৫১০৩৬৯৭ ফোন নাম্বারটা দিয়ে বললেন যোগাযোগ রেখো। তার পর দু’একবার ফোনে কথা হয়েছে। কিন্তু হটাত ভাইয়ের মৃত্যুর কথা শুনে মনে হলো আমি যেনো বড় কিছু হারিয়েছি।

তখন পরিচয় হওয়ার পর মনটা যেনো আনন্দে ভরে গিয়েছিলো। মনে হচ্ছিলো আমাকে বড় মানের একজন সাংবাদিক চেনে। তাই নিজেকে ধন্য মনে করছিলাম। এখন মনে হচ্ছে পরিচয় হওয়াটার কারণেই এতবড় কষ্ট পেলাম। যেখানে থাকবেন ভালো থাকবেন ভাই। আল্লাহ যেনো আপনাকে বেহেস্ত নসিব করেন।

মানবকণ্ঠ/এএম