ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে ট্রাম্প-কিম দ্বিতীয় বৈঠক

ফেব্রুয়ারির শেষ নাগাদ হতে যাচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জন উং-এর মধ্যকার দ্বিতীয় বৈঠক। হোয়াইট হাউসকে উদ্ধৃত করে এমনটি জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ট্রাম্প ও কিমের দ্বিতীয় বৈঠকের দিন-ক্ষণ নিয়ে আলোচনা করতে ১৮ জানুয়ারি ওয়াশিংটনে পৌঁছান পিয়ংইয়ং এর শীর্ষ দূত কিম ইয়ং চোল ছেন। উত্তর কোরিয়ার পক্ষের নেতৃত্বস্থানীয় ওই আলোচক ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করার পর হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বৈঠকের দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ইয়ং চোল ছেন কিমের পক্ষ থেকে লেখা একটি চিঠি ট্রাম্পকে দিয়েছেন। ওই চিঠিতে কী আছে তা স্পষ্ট করে জানা যায়নি। তবে বিবিসির প্রতিবেদক বলেছেন, সেখানে দ্বিতীয় বৈঠকের প্রসঙ্গই ছিল বলে ধারণা করছেন।

কোথায় দুই নেতার মধ্যে বৈঠক হবে, আনুষ্ঠানিকভাবে তা এখনও জানানো হয়নি। তবে সম্ভাব্য বৈঠকস্থল হিসেবে ভিয়েতনামের নাম শোনা যাচ্ছে।

এদিকে কিম ইয়ং চোল ছেনের হোয়াইট হাউজ বৈঠকের পর প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স বলেছেন পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে আলোচনা চলবে এবং যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার ওপর চাপ এবং নিষেধাজ্ঞা অব্যাহত রাখবে।

গত বছরের ১২ জুন সিঙ্গাপুরে প্রথমবারের মতো উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সঙ্গে মিলিত হন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ঐতিহাসিক বৈঠক শেষে এক সমঝোতা চুক্তিতে দীর্ঘদিনের বৈরী দু’দেশ যৌথভাবে কোরিয়া উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করার অঙ্গীকার করে। তবে উত্তর কোরিয়া তাদের পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের বিষয়ে কোনও সুনির্দিষ্ট রূপরেখা উল্লেখ না করায় দু’দেশের মধ্যেএখনো দর কষাকষি চলছে। 

মানবকণ্ঠ/এআর