ফুটবল মহাযজ্ঞ শুরু

৩২ দিন, ৩২ দল, ৬৪ ম্যাচ, ১২ ভেন্যু, ১১ শহর- এই নিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছে বিশ্বকাপ ফুটবলের রঙমঞ্চের। বিশ্বের কোটি কোটি মানুষের দৃষ্টি থাকবে এখন শুধুই রাশিয়ার দিকেই। সোনার হরিণ জিতবে কে- তার রসায়ন নিতে সবাই নিজেদের ব্যস্ত রাখবেন যার যার মতো করে। কেউবা মাঠে বসে, কেউবা টিভি পর্দার সামনে বসে।

ফুটবলের অমৃত স্বাদ গ্রহণ করা হবে এভাবেই। গতকাল রাজধানী মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে স্বাগতিক রাশিয়ার সঙ্গে সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে ২১তম আসরের যে পর্দা উঠেছে, তার আগে হয়ে গেছে ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের’ জাঁকজমকপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর ভাষণ দিয়ে শেষ হয় বর্ণিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের।

বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হওয়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তুলে ধরা হয় বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তিধর দেশটির ইতিহাস ও ঐতিহ্য। মঞ্চ তৈরি করা হয়েছিল ফুটবলের আকৃতি দিয়ে। শুরুতেই প্রধান আকর্ষণ হয়ে আসেন ব্রিটিশ পপ তারকা রবি উইলিয়ামসের ‘লেট মি এন্টারটেনইন ইউ’ শিরোনামে নজরকাড়া সংগীত পরিবেশন। তার সঙ্গে প্রায় ৫শ’ নৃত্যশিল্পির চমৎকার পরিবেশনা সবাইকে মুগ্ধ করে রাখে। এরই ফাঁকে একজন শিশু নিয়ে মাঠে প্রবেশ করেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি রোনাল্ডো।

বিশ্বকাপের মাসকট জাবিভাকার সামনে বিশ্বকাপের বল নিয়ে তিনি কিক নেয়ার ভঙ্গি করেন। কিন্তু ব্রাজিলের ২০০২ বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ী দলের অন্যতম এই তারকা নিজে আর কিক নেননি। তার সঙ্গে থাকা শিশুটি কিক নেন মাসকট বরাবর। জাবিভাকা সেইব বল নেয় নিজের নিয়ন্ত্রণে। এদিকে রবি উইলিয়ামসনের পরিবেশনার সময়ই মাঠে প্রবেশ করেন রাশিয়ান শিল্পী আইদা গারিফুলিনা। তিনি মাঠে প্রবেশ করেন কৃত্রিম পাখির ডানায় ভর করে। আইদাও রবির সঙ্গে সংগীত পরিবেশন করেন।

স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শকদের সামনে স্পেনের বিশ্বকাপ জয়ী দলের অন্যতম সদস্য ও সাবেক অধিনায়ক গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াস একটি বাক্স থেকে বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে ধরেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন মডেল নাতালিয়া ভোদিয়ানোভা। অংশগ্রহণকারী ৩২টি দেশের পতাকাও এ সময় প্রদর্শন করা হয়। ছিল আতশবাজিও। আধ ঘণ্টার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর পরই স্বাগতিক রাশিয়া ও এশিয়ার প্রতিনিধি সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়ে যায় ময়দানী লড়াই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.