‘ফখরুলের ওপর হামলা চালিয়েছে উত্তেজিত জনতা’

পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার পথে বিএনপির মহাসচিবসহ প্রতিনিধি দলের ওপর উত্তেজিত স্থানীয় জনতা হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, আমরা জেনেছি- বিএনপির গাড়িবহরের ধাক্কায় দুইজন স্থানীয় গুরুতর আহত হয়। তারা এখনো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এই ঘটনায় স্থানীয় জনতার সঙ্গে বিএনপির প্রতিনিধিদলের কথা কাটাকাটি। একপর্যায়ে উত্তেজিত জনতা তাদের গাড়িবহরে হামলা চালায়।

সোমবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি আরো বলেন, এছাড়া চট্টগ্রাম ও রাঙ্গুনিয়ায় বিএনপিতে দীর্ঘদিন ধরে গ্রুপিং চলমান। যতটুকু জেনেছি- গাড়িবহরে এক গ্রুপের নেতারা থাকলেও অন্য গ্রুপের নেতারা ছিলেন না। এছাড়া চট্টগ্রামের রাউজান এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে সাকা চৌধুরী জনপ্রতিনিধি ছিলেন। তার পরিবারের কোনো সদস্যও গাড়িবহরে ছিলেন না। এসব গ্রুপিং কারণেও হামলা হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

হামলার ঘটনাকে দুঃখজনক বললেও বিএনপির পরিদর্শনে যাওয়া নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগের এই নেতা। তিনি বলেন, গাড়িবহরে ত্রাণ সামগ্রী ছিল না। প্রশাসনকে আগের দিন যেই রাস্তা দিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে সেই রাস্তা তারা ব্যবহার করেনি। প্রশাসনের সঙ্গেও তারা কোনো সমন্বয় করেনি। তাদের এসব কর্মকাণ্ড রহস্যজনক। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে সব কিছু বের করা হবে। হামলার ঘটনায় বিএনপি রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছে বলেও দাবি করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি এটিএম শামসুজ্জামান।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

One Response to "‘ফখরুলের ওপর হামলা চালিয়েছে উত্তেজিত জনতা’"

  1. Bappee   21/06/2017 at 8:20 AM

    Tomar ba tomader atto uttejona kotha theke ashe. Uttejona tho komate halka exercise-e enough. You guys are tying to fanning the flame so that next election a faka mathe goal dete paro. Jotto sob nonsense logics..