প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা

প্রেমের ফাঁদে ফেলে টাঙ্গাইল থেকে ১৬ বছরের এক কিশোরীকে সিলেটের বিশ্বনাথে এনে ধর্ষণের পরে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ঘাতক সন্দেহে শফিক মিয়া (৩২) নামে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে তাকে টাঙ্গাইল থেকে গ্রেফতার করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত শফিক বিশ্বনাথের রামচন্দ্র্রপুর গ্রামের বাসিন্দা। বুধবার দুপুরে সিলেট জেলা পুলিশ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান।

পুুলিশ সুপার জানান, গত ১০ সেপ্টেম্বর বিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়নে রাস্তার পাশের একটি বাড়ি থেকে অজ্ঞাতনামা এক কিশোরীর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর তার সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন নম্বরের সূত্র ধরে এ হত্যারহস্য উদঘাটন করা হয়।

তিনি জানান, গত ৯ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইলের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি ছিল ওই জেলার মির্জাপুর থানার আতাউর রহমানের মেয়ে রুমি আক্তার। একই হাসপাতালে শফিকের শাশুড়িও চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই তাদের পরিচয় হয়। শফিক এর আগে আরো চারটি বিয়ে করেছে। হাসপাতালে পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের অভিনয় করে রুমিকে সিলেটে নিয়ে আসে শফিক। এরপর তাকে ধর্ষণ ও হত্যা করে। বিশ্বনাথ থানায় দায়ের করা একটি গণধর্ষণ মামলারও পলাতক আসামি শফিক।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ