প্রথম ধাপের ভোট শান্তিপূর্ণ-সন্তোষজনক : ইসি

পঞ্চম উপজেলা পরিষদের প্রথম ধাপের ভোট অনেকাংশেই শান্তিপূর্ণ হয়েছে বওেল দাবি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতিও সন্তোষজনক ছিল বলে দাবি করেছে নির্বাচন আয়োজনকারী সংস্থাটি। রোববার ৭৮ উপজেলার ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

ইসি সচিব বলেন, ৭৮টি উপজেলায় ৫ হাজার ৮৪৭টি কেন্দ্রে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিভিন্ন অনিয়মের কারণে ২৮টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ বন্ধ করা হয়েছে। এগুলোতে পরবর্তীতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া অন্য কেন্দ্রগুলোতে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচন মোটামুটি শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে কমিশন মনে করে।

তিনি বলেন, ভোটারদের উপস্থিতির ব্যাপারে আমরা যতটুকু জেনেছি যে মোটামুটি সন্তোষজনক। উপস্থিতির হার এখনো আমরা জানতে পারিনি। ভোটগণনা শুরু হয়েছে। এটা শেষ হলে পরবর্তীতে জানাতে পারবো কত শতাংশ ভোট পড়েছে।

অনিয়মকারীদের বিররুদ্ধ ব্যবস্থা নেয়ার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, সিরাজগঞ্জে দুইজন প্রিজাইডিং ও সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। লালমনিরহাটের পাটগ্রামের সহকারী রিটার্নিং ও রিটার্নিং অফিসারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া যারা অনিয়মের সঙ্গে জড়িত ১০ জনের অধিক লোককে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শাস্তি দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ভোটার উপস্থিতির বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, প্রতিযোগীতাপূর্ণ হলে নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি বাড়ে। এ নির্বাচনে অনেক দল অংশ না নেয়াকে তিনি ভোটার উপস্থিতি তুলনামূলক কমের জন্য দায়ী করেন।

উল্লেখ্য, সারাদেশের উপজেলাগুলোতে এবার পাঁচ ধাপে ভোটগ্রহণ করবে ইসি। দ্বিতীয় ধাপে ১৮ মার্চ, তৃতীয় ধাপে ২৪ মার্চ, চতুর্থ ধাপে ৩১ মার্চ ও পঞ্চম ধাপে ১৮ জনু ভোটগ্রহণ করবে নির্বাচন কমিশন।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ