পিআইবিকে আইনি কাঠামো দিয়ে সংসদে বিল পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সাংবাদিকতায় অবদানের জন্য বিশেষ সম্মাননা প্রদান, সাংবাদিকতা বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়ন, পেশাগত প্রশিক্ষণ, সার্টিফিকেট, ডিপ্লোমা ও ডিগ্রি কোর্স পরিচালনার ক্ষমতা দিয়ে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) আইন ২০১৮ বিল পাস করেছে সংসদ। ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদের ২১তম অধিবেশনে গতকাল বুধবার তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিলটি পাস করার প্রস্তাব করলে কয়েকটি সংশোধনী গ্রহণ করে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়। এর আগে বিলের ওপর আনীত সংশোধনী, জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে প্রেরণের প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।
বিলে পিআইবি পরিচালনার জন্য বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন মনোনিত দুইজন সদস্যসহ একটি পরিচালনা বোর্ড গঠন, তহবিল গঠন ও পরিচালনা, একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একাডেমিক কমিটি গঠন ও আইনের উদ্দেশ পূরণে একাধিক কমিটি গঠনের বিধান রাখা হয়েছে। একজন বিশিষ্ট সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ বা জনসংযোগে দক্ষ ব্যক্তিবর্গের মধ্য থেকে সরকার পিআইবির চেয়ারম্যান নিযুক্ত করবেন। সরকার ইনস্টিটিউটের জন্য একজন মহাপরিচালকও নিয়োগ করবেন। তবে তিনি সাংবাদিক হবেন এমন কোনো শর্ত রাখা হয়নি।
বিলের রহিতকরণ ও হেফাজত ধারায় বলা হয়েছে, এই আইন কার্যকর হওয়ার সাথে সাথে ১৯৭৬ সালের ১৮ আগস্ট গেজেট বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গঠিত বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট রেজুলেশন রহিত হবে এবং রেজুলেশনের অধীন সব স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তি, নগদ ব্যাংকে গচ্ছিত অর্থ ও মঞ্জুরি আইনের অধীন পিআইবির এখতিয়ার ভুক্ত হবে।
বিলের উদ্দেশ ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়, বিদ্যমান বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটকে সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য আইনি কাঠামো প্রদানের লক্ষ্যে নতুন আকারে প্রস্তাবিত আইন প্রণয়ণের জন্য এই বিল উপস্থাপন করা হলো।